ক্যান্টন ফেয়ারে ওয়ালটন পণ্যে আগ্রহ বিশ্ব ক্রেতাদের

Send
বাংলা ট্রিবিউন ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৫:০২, এপ্রিল ২০, ২০১৬ | সর্বশেষ আপডেট : ১৫:৫৫, এপ্রিল ২৮, ২০১৬

ক্যান্টন ফেয়ারে ওয়ালটনের স্টলচীনের ইলেকট্রনিক্স পণ্য প্রদর্শনী ক্যান্টন ফেয়ারে বিশ্ব ক্রেতাদের দৃষ্টি কেড়েছে বাংলাদেশি ব্র্যান্ড ওয়ালটনের বিভিন্ন পণ্য। ইউরোপ-আমেরিকাসহ বিভিন্ন দেশের ক্রেতারা প্রসংশা করেছেন ওয়ালটন পণ্যের। অনেকেই কারখানা পরিদর্শন এবং পণ্য ক্রয়ে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন।
এদিকে, ওয়ালটন কর্তৃপক্ষ আশা করছে মেলায় অংশ নেওয়ায় অল্পদিনের মধ্যেই বড় অঙ্কের রফতানি আদেশ পাওয়া যেতে পারে। সবচেয়ে বড় রফতানি আদেশ আসতে পারে অস্ট্রেলিয়া থেকে। সেখানকার ওমেগা প্রাইভেট লিমিটেডের প্রতিনিধিদল ওয়ালটন কারখানা পরদির্শন করেছেন। শিগগির প্রতিষ্ঠানের আরও একটি প্রতিনিধি দল ওয়ালটন কারখানা পরিদর্শন করবেন। এছাড়া আমেরিকার মিচা লুইচ কোম্পানির স্বত্ত্বাধিকারী মিস্টার মিচাও ওয়ালটন কারখানা পরিদর্শনে আসার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন।
ক্যান্টন ফেয়ার বিশ্বের সবচেয়ে বড় বাণিজ্য মেলা। গত ১৫ ‍জুলাই থেকে ১৯ জুলােই পর্যন্ত চীনের গুয়াংজু শহরে বছরে দুবার অনুষ্ঠিত হয় এ মেলা। মেলার অফিসিয়াল নাম ‘চায়না এক্সপোর্ট ইমপোর্ট ফেয়ার’। প্রথমবারের মতো মেলায় অংশ নিয়েছিল বাংলাদেশি ইলেকট্রনিক্স পণ্য উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন।
জানা গেছে, এবারের মেলায় পৃথিবীর প্রায় ২০০টি দেশের ৩ লক্ষাধিক ক্রেতা অংশ নেন। এর বাইরে আরও প্রায় ৩ লাখ ছিলেন বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা ও প্রতিনিধি। পৃথিবীর প্রায় সকল শীর্ষ ব্র্যান্ডের পণ্য প্রদর্শিত হয় এখানে। আসেন বিভিন্ন দেশের শীর্ষ ক্রেতা-ব্যবসায়ীরা।
মেলায় প্রদর্শিত হয় ওয়ালটনের ফ্রস্ট ও নো ফ্রস্ট রেফ্রিজারেটর, ফ্রিজার, এলইডি টেলিভিশন, এয়ার কন্ডিশনার, রিচার্জেবল ফ্যান, ইলেকট্রিক সুইস-সকেট, এলইডি বাল্ব, ইন্ডাকশন কুকার, ব্লেন্ডার, এসিড লেড রিচার্জেবল ব্যাটারি ইত্যাদি।
ওয়ালটনের ইন্টারন্যাশনাল মার্কেটিং বিভাগের প্রধান রকিবুল ইসলাম রাকিব বলেন, ক্যান্টন ফেয়ারে ইউরোপ, আমেরিকা, অস্ট্রেলিয়া, এশিয়া ও আফ্রিকার অসংখ্য ক্রেতা ওয়ালটন প্যাভিলিয়ন পরিদর্শন করে পণ্যের স্পেসিফিকেশন এবং মূল্য ঠিক করে অর্ডার দেন। কয়েক মাসের মধ্যে ১০ মিলিয়ন ডলারের রফতানি আদেশ পাওয়া যাবে বলে আশা করছেন তিনি।
/এসএনএইচ/

লাইভ

টপ