সচিত্র স্বাস্থ্য সতর্কবাণী বাস্তবায়ন সভায় নেই স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়!

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১০:১০, ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০১৮ | সর্বশেষ আপডেট : ১০:১২, ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০১৮

 

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়সিগারেটের প্যাকেটে স্ট্যাম্প ও ব্যান্ডরোল ব্যবহার সংক্রান্ত জটিলতা নিরসনে প্রয়োজনীয় সিদ্ধান্ত গ্রহণের লক্ষ্যে সভায় আয়োজন করেছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। আগামী ২০ ফেব্রুয়ারি এনবিআর সভাকক্ষে ওই সভা অনুষ্ঠিত হবে। তবে ওই বৈঠকে ডাকা হয়নি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় বা এর অধীন জাতীয় তামাক নিয়ন্ত্রণ সেলকে।

বেসরকারি প্রতিষ্ঠান প্রগতির জন্য জ্ঞান (প্রজ্ঞা) নির্বাহী পরিচালক এবিএম জুবায়ের সাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, সভায় অংশগ্রহণের জন্য দি সিকিউরিটি প্রিন্টিং করপোরেশন (বাংলাদেশ), বাংলাদেশ সিগারেট ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিসিএমএ) প্রতিনিধিরা উপস্থিত থাকবেন। তবে সচিত্র স্বাস্থ্য সতর্কবাণী বাস্তবায়নে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ই প্রধান অংশীদার। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়কে পাশ কাটানোর এই প্রচেষ্টা তামাকবিরোধীদের মনে নতুন শঙ্কা তৈরি হয়েছে। তামাকবিরোধীদের মতে, সচিত্র স্বাস্থ্য সতর্কবাণী বাস্তবায়নে শেষ পর্যন্ত তামাক কোম্পানির পরামর্শই চূড়ান্তভাবে গ্রহণ করা হতে পারে। 

উল্লেখ্য, গত বছরের ১৯ সেপ্টেম্বর থেকে সচিত্র স্বাস্থ্য সতর্কবাণী তামাক পণ্যের প্যাকেটের উপরিভাগে মুদ্রণ বাধ্যতামূলক মর্মে জাতীয় তামাক নিয়ন্ত্রণ সেল (এনটিসিসি) গণবিজ্ঞপ্তি জারি করে। তবে বিসিএমএ উচ্চ আদালতে রিট আবেদন করায় গণবিজ্ঞপ্তিটির কার্যকারিতা প্রথমে তিন মাস এবং পরবর্তীতে  আরও ছয় মাসের জন্য স্থগিত ঘোষণা করেন আদালত।  পাশাপাশি জাতীয় রাজস্ব বোর্ড ২৪ আগস্ট এক চিঠির মাধ্যমে সিগারেট উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর সুবিধার্থে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়কে ওই গণবিজ্ঞপ্তির কার্যকারিতা এক বছরের জন্য স্থগিত রাখার অনুরোধ জানায়।

আরও পড়ুন:
চিকিৎসক-সংকটে ধুঁকছে খাগড়াছড়ির স্বাস্থ্যসেবা

/এসআই/এসএনএইচ/

লাইভ

টপ