behind the news
Vision  ad on bangla Tribune

এক ছাদের নিচে আসছে ভূমি বিষয়ক সব দফতর

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট১৭:৫৭, ডিসেম্বর ২২, ২০১৫

nonameরাজধানীতে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে ভূমি সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন দফতর। জনগণের ভোগান্তি লাঘবে ওয়ান স্টপ সার্ভিস সেন্টার প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে এক ছাদের নিচে নিয়ে আসা হচ্ছে ভূমি বিষয়ক এ সব দফতর।
তেজগাঁওয়ে ভূমি রেকর্ড ও জরিপ অধিদফতর প্রাঙ্গণে এ লক্ষ্যে নির্মাণ করা হবে ভূমি ভবন কমপ্লেক্স। দুটি ভূগর্ভস্থস্তরসহ ২০ তলাভিত্তি বিশিষ্ট ১৩ তলা ভবনে ৩২ হাজার ১১৪ দশমিক ২৭ বর্গমিটার অফিস ভবন, ২৭০ মিটার সীমানা দেয়াল নির্মাণ, ২৭০ মিটার নর্দমা এবং ৭২৫ মিটার অভ্যন্তরীণ সড়ক নির্মাণ করা হবে। এতে ব্যয় হবে ১৩৯ কোটি ৯৬ লাখ টাকা।
এ বহুতল কমপ্লেক্সে স্থান পাবে ভূমি রেকর্ড ও জরিপ অধিদফতর, ভূমি সংস্কার বোর্ড, ভূমি আপিল বোর্ড এবং ভূমি প্রশাসন প্রশিক্ষণ কেন্দ্র।
জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) বৈঠকে ‘ভূমি ভবন কমপ্লেক্স নির্মাণ’ শীর্ষক প্রকল্পটি অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি এ বৈঠকে আরও চারটি প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয় ।

অনুমোদন দেওয়া মোট পাঁচটি প্রকল্প বাস্তবায়নে মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ৭৫৯ কোটি ১২ লাখ টাকা। এর মধ্যে সরকারি তহবিল থেকে দেওয়া হবে ৭২৬ কোটি ৭২ লাখ টাকা। আর সংস্থার নিজস্ব তহবিল থেকে যোগান দেওয়া হবে ৩২ কোটি ৪০ লাখ টাকা।

প্রধানমন্ত্রী ও একনেক চেয়ারম্যান শেখ হাসিনা সভাপতিত্বে রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষধ (এনইসি) সম্মেলন কক্ষে মঙ্গলবার এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এ বিষয় অবহিত করেন পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তাফা কামাল। এ সময় উপস্থিত ছিলেন পরিকল্পনা সচিব সফিকুল আযম, পরিসংখ্যান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের সচিব কানিজ ফাতেমা, সাধারণ অর্থনীতি বিভাগের সদস্য ড. শামসুল আলম প্রমুখ।

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ঢাকা শহরের বিভিন্ন স্থানে ছড়িয়ে রয়েছে ভূমি বিষয়ক বিভিন্ন দফতর। ফলে সেবা পাওয়ার ক্ষেত্রে ভোগান্তির সম্মুখীন হতে হয় জনগণকে ।

দফতরগুলো একটিমাত্র ভবনের আওতায় আসলে ওয়ান স্টপ সার্ভিস সেন্টারের মাধ্যমে এ বিষয়ে জনগণ উত্তম ও সহজে সেবা দেওয়া সম্ভব হবে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

অনুমোদিত পাওয়া অপর প্রকল্পগুলোর মধ্যে রয়েছে ১২৭ কোটি ১৩ লাখ টাকা ব্যয়ে ময়মনসিংহ কেন্দ্রীয় কারাগার সম্প্রসারণ ও আধুনিকীকরণ প্রকল্প, ২৩১ কোটি ৬৭ লাখ টাকা ব্যয়ে অংশীদারিত্বমূলক পল্লী উন্নয়ন প্রকল্প (পিআরডিপি) তৃতীয় পর্যায় প্রকল্প, ১৭২ কোটি টাকা ব্যয়ে কৃষি উৎপাদন বৃদ্ধিতে ভূ-উপরিস্থ পানি ব্যবহারে রাবার ড্যাম নির্মাণ প্রকল্প এবং ৮৮ কোটি ৩৬ লাখ টাকা ব্যয়ে নারী উদ্যোক্তদের বিকাশ সাধন (তৃতীয় পর্যায়) প্রকল্প।

/এফএইচ/

লাইভ

Nitol ad on bangla Tribune
টপ