behind the news
Rehab ad on bangla tribune
Vision Refrigerator ad on bangla Tribune

পোশাক শিল্পের করপোরেট ট্যাক্স কমছে শিগগিরই: বাণিজ্যমন্ত্রী

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট১৮:৪৩, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০১৬

তোফায়েল আহমেদতৈরি পোশাক শিল্প মালিকদের করপোরেট ট্যাক্স কমানোর সিদ্ধান্ত শিগগিরই বাস্তবায়ন করা হবে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ।
মঙ্গলবার তৈরি পোশাক রপ্তানিকারকেদের সংগঠন বিজিএমইএ ভবনে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।
এশিয়া উন্নয়ন ব্যাংকের (এডিবি) অর্থায়নে এবং অর্থ মন্ত্রণালয়ের তত্ত্বাবধানে পরিচালিত ‘স্কিল ফর এমপ্লয়মেন্ট ইনভেস্টমেন্ট প্রোগ্রামের’ (এসইআইপি) আওতায় বিলুপ্ত ছিটমহলের ২৯ জন নাগরিককে প্রশিক্ষণ সনদ-ভাতা এবং চাকরির নিয়োগপত্র প্রদান করতে ওই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে বিজিএমইএ।
এছাড়া অনুষ্ঠানে সম্প্রতি ভারতে অনুষ্ঠিত সাউথ এশিয়ান গেমসে স্বর্ণপদক বিজয়ী মাহফুজা ও মাবিয়াকে বিজিএমইএর পক্ষ থেকে সংবর্ধনা ও এক লাখ টাকার চেক প্রদান করা হয়।
২০১৪-১৫ অর্থবছরে সরকার তৈরি পোশাক মালিকদের ব্যবসায় ৩৫ শতাংশ করপোরেট ট্যাক্স আরোপ করে। এর আগে তাদের ১০ শতাংশ ট্রাক্স  পরিশোধ করতে হতো। সরকারের এ সিদ্ধান্তের পর থেকেই করপোরেট ট্যাক্স পুনঃরায় ১০ শতাংশ করার দাবি জানিয়ে আসছিলেন পোশাক শিল্প মালিকরা। ব্যবসায়ীদের এই দাবির প্রেক্ষিতে সরকার করপোরেট ট্যাক্স কমানোর নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছে।
বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ব্যবসায়ীক উন্নয়নে পথে সব চেয়ে বড় বাধা রাজনৈতিক অস্থিরতা। যার কারণে গত বছর রপ্তানি আয়ের লক্ষ্যমাত্রা অর্জন হয়নি।  তবে ভবিষ্যতে রাজনৈতিক পরিস্থিতি বর্তমানের মতো স্থিতিশীল থাকলে রপ্তানি লক্ষ্যমাত্রার চেয়েও বেশি অর্জন করার সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানান আওয়ামী লীগের এই নেতা।
তোফায়েল আহমেদ বলেন, জিএসপি সুবিধা বাতিল করার পরও যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশি পণ্য রপ্তানি ১৬ শতাংশ বেড়েছে। তবে আশা করা হচ্ছে সে দেশে এবছর রপ্তানি ৬ মিলিয়ন ডলার ছাড়িয়ে যাবে।
অনুষ্ঠানে বিজিএমইএর সভাপতি মো. সিদ্দিকুর রহমান বলেন, দেশের তৈরি পোশাক খাতে ২৫ থেকে ৩০ শতাংশ দক্ষ শ্রমিকের অভাব রয়েছে। তাই এদেশের বিপুল মানবসম্পদের দক্ষতা বাড়িয়ে শ্রমিকের অভাব দূর করা যেতে পারে।
তিনি আরও বলেন, পোশাক খাতে দক্ষ জনবল বৃদ্ধিতে এডিবির অর্থায়নে এসইআইপি প্রকল্পের আওতায় গত ৩ বছরে পোশাক শিল্পের ৪৩ হাজার ৮০০ জনকে  প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে, যা পোশাক রফতানি ৫০ বিলিয়ন ডলার অর্জনে সহায়ক হবে।
এ প্রকল্পের আওতায় প্রশিক্ষণের প্রথম বছরের প্রথমভাগে রাঙামাটি, বান্দরবান, বিলুপ্ত ছিটমহলসহ বিভিন্ন প্রত্যন্ত অঞ্চলের উল্লেখযোগ্য সংখ্যক দরিদ্র নারী-পুরুষকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে বলেও জানান সিদ্দিকুর রহমান।
অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- বিজিএমইএ সহ সভাপতি (অর্থ) মোহাম্মদ নাসির উদ্দিন, যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আনোয়ারুল করিম, সিইআইপি প্রকল্পের নির্বাহী পরিচালক আব্দুল রউফ তালুকদার প্রমুখ।
/এসএনএইচ/এজে/

Ifad ad on bangla tribune

লাইভ

Nitol ad on bangla Tribune
টপ