আর্থিক প্রতিষ্ঠানের বিনিয়োগ সীমা বেঁধে দিলো বাংলাদেশ ব্যাংক

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ০১:১৫, মার্চ ৩১, ২০১৬ | সর্বশেষ আপডেট : ০১:১৮, মার্চ ৩১, ২০১৬

বাংলাদেশ ব্যাংকবাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনে (বিএসইসি) নিবন্ধিত কিন্তু পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত নয় (নন-লিস্টেড) এমন তহবিলে আর্থিক প্রতিষ্ঠানের বিনিয়োগের সীমা বেঁধে দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।
বুধবার কেন্দ্রীয় ব্যাংকের আর্থিক প্রতিষ্ঠান ও বাজার বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত একটি সাকুর্লার জারি করা হয়েছে। ফলে এখন থেকে অলটারনেটিভ ইনভেস্টমেন্ট ফান্ড, স্পেশাল পারপাস ভেহিকল বা সমজাতীয় এক বা একাধিক তহবিলে আর্থিক প্রতিষ্ঠান স্বীয় পরিশোধিত মূলধনের ৫০ শতাংশের বেশি বিনিয়োগ করতে পারবে না।
দেশের আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রধান নির্বাহীর কাছে পাঠানো সার্কুলারে বলা হয়েছে, বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) কর্তৃক নিবন্ধিত বিশেষ উদ্দেশ্যে গঠিত এবং পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত নয় এরূপ তহবিলে আর্থিক প্রতিষ্ঠানের মোট বিনিয়োগ তার পরিশোধিত মূলধনের ৫০ শতাংশের অধিক হবে না। তবে একক তহবিলে আর্থিক প্রতিষ্ঠানের স্বীয় পরিশোধিত মূলধনের ১০ শতাংশ অথবা প্রস্তাবিত তহবিলের মাধ্যমে সংগৃহীতব্য অর্থের ২০ শতাংশের মধ্যে যেটি তার অধিক বিনিয়োগ করতে পারবে না।
সার্কুলারে বলা হয়েছে,এমন তহবিলে বিনিয়োগের সিদ্ধান্ত আর্থিক প্রতিষ্ঠানের পরিচালনা পর্ষদ কর্তৃক অনুমোদিত হতে হবে। তবে বিনিয়োগের কমিটমেন্ট প্রদানের পূর্বে বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমোদন গ্রহণের জন্য আবেদন করতে হবে।আবেদনপত্রের সাথে সংশ্লিষ্ট তহবিলের যাবতীয় তথ্য এবং বিনিয়োগকারী আর্থিক প্রতিষ্ঠানের মূলধন, তারল্য, সম্পদ ও দায়ের গুণগত মান ও পরিমাণের সর্বশেষ তথ্য জমা দিতে হবে।
এতে আরও বলা হয়েছে,এমন তহবিলে বিনিয়োগকারী আর্থিক প্রতিষ্ঠানের শেয়ার, ডিবেঞ্চার, বন্ড বা অন্য কোনও ইনস্ট্রুমেন্ট বা বিনিয়োগকারী আর্থিক প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত কোনও ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান বিনিয়োগ করতে পারবে না।

/জিএম/এমএসএম

লাইভ

টপ