১০ মাস ভাতাহীন ১০ মুক্তিযোদ্ধা

Send
খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৯:১৯, অক্টোবর ১৯, ২০১৬ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:২১, অক্টোবর ১৯, ২০১৬

মুক্তিযোদ্ধা ভাতাখাগড়াছড়ি জেলার মহালছড়ি উপজেলার ১০ বীর মুক্তিযোদ্ধা গত ১০ মাস ধরে ভাতা পাচ্ছেন না। মুক্তিযোদ্ধারা বলছেন প্রশাসনের কারণেই এই বিড়ম্বনা। আর প্রশাসন বলছে বিষয়টি মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের দেখার কথা। বিতর্ক ১০ মাস ধরে চললেও সম্মানীর বিষয়টির সমাধান না হওয়ায় মানবেতর জীবন যাপন করছে মুক্তিযোদ্ধারা।
মহালছড়ি উপজেলা প্রশাসন সূত্র জানায়, মহালছড়ি উপজেলায় সর্বমোট ৩২জন মুক্তিযোদ্ধার তালিকা রয়েছে। নানা কারণে ভাতা বন্ধ ছিলো  ৮ জনের। ২৪ মুক্তিযোদ্ধার ভাতা পেয়ে আসছেন দীর্ঘ দিন যাবত। কিন্তু গত জানুয়ারি মাস থেকে ভাতা আসছে মাত্র ১৪ জনের। ফলে প্রতি মাসে জনপ্রতি ১০ হাজার টাকা সম্মানী ভাতা পাওয়া থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন ১০  মুক্তিযোদ্ধা।
মহালছড়ি উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার চহ্লাপ্রু মারমা বলেন, ‘প্রশাসনিক জটিলতার কারণে গত ১০ মাস ভাতা পাচ্ছেন না তারা। এটি বয়স্কভাতা বা বিধবা ভাতা নয়, এটি আমাদের সম্মানী ভাতা। উপজেলা নির্বাহী অফিসারের ভুলের কারণেই এই বিড়ম্বনা।’
মহালছড়ি উপজেলার মুক্তিযোদ্ধা স্বপন চন্দ্র দে বলেন, ‘ভাতা নিয়ে ভোগান্তিতে আছি। ইউএনও অফিসে গেলে বলেন ডিসি অফিসে যাও, ডিসির নিকট গেলে বলে ইউএনও অফিসে যাও। এই অবস্থা থেকে পরিত্রাণ চাই।’

মহালছড়ি উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ ইলিয়াছ মিয়া বলেন, ‘বিষয়টি অমানবিক। তবে কার ভুলে মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রণালয় ২৪ জনের বরাদ্ধের স্থলে ১৪ জনের বরাদ্ধ পাঠাচ্ছেন, তা তার জানা নেই।’

খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসক মুহাম্মদ ওয়াহিদুজ্জামান বলেন, তিনি এই বিষয়ে মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রণালয়ে চিঠি লিখেছেন। শিগগিরিই এই সমস্যার সমাধান হবে।

/এনএস/

লাইভ

টপ