রাত পোহালেই সাতক্ষীরায় ৮ ইউনিয়নের পুনঃনির্বাচন

Send
আসাদুজ্জামান সরদার, সাতক্ষীরা
প্রকাশিত : ২৩:০৪, অক্টোবর ৩০, ২০১৬ | সর্বশেষ আপডেট : ২৩:১৯, অক্টোবর ৩০, ২০১৬

ইউপি নির্বাচন ২০১৬রাত পোহালেই সাতক্ষীরা জেলার ৫টি উপজেলার ৮টি ইউনিয়নের ১৪টি বন্ধ ঘোষিত ভোটকেন্দ্রে পুনঃনির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া দুটি কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হবে উপনির্বাচন।  সাতক্ষীরা জেলা নির্বাচন অফিসার এএইচএম কামরুল হাসান বাংলা ট্রিবিউনকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।  
সোমবার অনুষ্ঠেও নির্বাচনে শান্তিপূর্ণ ভোট গ্রহণের লক্ষ্যে ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে প্রশাসন, এমনটাই জানা যায়। বিগত ইউপি নির্বাচনে সহিংসতা ও ভোটে কারচুপির কারণে কেন্দ্রগুলোতে ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয় বলে জানা গেছে। তবে এরমধ্যে দু’টি কেন্দ্রে উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে।
গত ২২ মার্চ প্রথম ধাপের ইউপি নির্বাচনের সময় নানাবিধও অভিযোগে এসমস্ত কেন্দ্রের ভোট স্থগিত করা হয়েছিল বলে জানা গেছে।
সাতক্ষীরা জেলা নির্বাচন অফিসার এএইচএম কামরুল হাসান বাংলা ট্রিবিউনকে জানান, বিগত ইউপি নির্বাচনে জাল ভোট, সহিংসতা, ব্যালট পেপার ছিনতাইসহ ভোট ডাকাতির অভিযোগে জেলার ১৪টি ভোট কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়। সাতক্ষীরা সদরের কেন্দ্রগুলো হলো- আলীপুর ইউনিয়নের আলীপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র, মাহমুদপুর সরকারী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র, গাংনিয়া সিনিয়র মাদ্রাসা ও ভাড়খালী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র।

এছাড়াও তালা উপজেলার কুমিরা ইউনিয়নের ভাগবহা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র, অভয়তলা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র ও দাদপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র। কলারোয়া উপজেলার কুশোডাঙ্গা ইউনিয়নের কলাটুপি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র ও শাকদহা দাখিল মাদ্রাসা এবং কেরালকাতা ইউনিনের বালিয়ানপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র।

এদিকে কেরালকাতা ইউনিয়ে নৌকা প্রতিকের সমর্থকরা হামলা চালিয়ে প্রতিপক্ষ আনারস প্রতীকের আটজন কর্মী সমর্থকদের বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাঙচুরের ঘটনার সময় আতংকিত হয়ে হার্টএ্যাটাকে এক নারীর মৃত্যু হয়। এজন্য ওই এলাকায় আইনশৃংখলা বাহিনী প্রস্তুত রয়েছে বলে জানা গেছে।

দেবহাটা উপজেলার পারুলিয়া ইউনিয়নের খেজুরবাড়িয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র। শ্যামনগর উপজেলার কৈখালী ইউনিয়নের পূর্ব কৈখালী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র, কৈখালী মহাজেরিন সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র, ও শৈলখালী এম ইউ দাখিল মাদ্রাসা।

এছাড়া সমসংখ্যাক ভোট পাওয়ায় সাতক্ষীরা সদরের দক্ষিন কুশখালী কমিউনিটি ক্লিনিকে ও ইউনিয়ন পরিষদ সদস্যের মৃত্যুজনিত কারনে দেবহাটার কুলিয়া মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ে উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

জেলা নির্বাচন অফিসার আরো জানান, যে কোনও মূল্যে এবারের নির্বাচন নিরপেক্ষ করতে চেষ্টা চালাচ্ছেন নির্বাচন কমিশনসহ সংশ্লিষ্টরা।

নির্বাচনকে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ করতে ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে প্রশাসন। প্রতিটি কেন্দ্রে ম্যাজিস্ট্রিয়াল দায়িত্ব পালনের জন্য একজন করে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ দিয়েছেন জেলা প্রশাসান। এছাড়া প্রতিটি কেন্দ্রে একজন এসআই’র নেতৃত্বে ৭জন পুলিশ সদস্য, ২জন অস্ত্রধারী আনসার সদস্য ও ১৬ জন লাটি আনসার সদস্য নিরাপত্তার দায়িত্বে নিয়োজিত থাকবেন।

সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক আবুল কাশেম মো মহিউদ্দিন বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ভোট সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ করতে ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। আইনশৃংঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ, বিজিবি, আনছার এবং প্রতিটি কেন্দ্র একজন করে ম্যাজিস্ট্রেট থাকবে। যদি কেউ অতি উৎসাহী হয়ে কোনও কিছু করতে যায়, বিপদে পড়বে।

/ এইচকে/

 

লাইভ

টপ