Vision  ad on bangla Tribune

সাতক্ষীরায় কৈখালী ইউপি চেয়ারম্যানসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে অপহরণ মামলা

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি১১:৪৬, ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০১৭

সাতক্ষীরা জেলাসাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার কৈখালী ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রহিমসহ আটজনকে অসামি করে থানায় একটি অপহরণ মামলা দায়ের করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) বিকালে উপজেলার রমজাননগর ইউনিয়নের তারানীপুর গ্রামের মো. আব্দুল মান্নান গাজীর ছেলে আব্দুল মজিদ গাজীর আদালতে দায়ের করা অভিযোগটি শ্যামনগর থানায় নিয়মিত মামলা হিসেবে রেকর্ড করা হয়েছে।
মামলার অসামিরা হলেন- সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার ৫নং কৈখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জয়াখালী গ্রামের শেখ আবু দাউদের ছেলে শেখ আব্দুর রহিম, তার ভাই শেখ অব্দুর রহমান, একই গ্রামের মৃত সেইতা গাজীর ছেলে আব্দুর রাশেদ, আমজাদ গাজীর ছেলে হাবিবুর রহমান, অমেদ আলী গাজীর ছেলে আব্দুল মান্নান, বৈশখালী গ্রামের শেখ আব্দুর রশিদের ছেলে আবু তাহের, পূর্ব কৈখালী গ্রামের বাবুল গাজীর ছেলে আবু রায়হান ও মৃত সোরাপ গাজীর ছেলে রফিকুল ইসলাম গাজী।
বাদীর এজাহার সূত্রে জানা যায়, বাদী একজন দরিদ্র দিনমজুর বালি ব্যবসায়ী। সম্প্রতি কৈখালী ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রহিমের ইটভাটায় ৩ লাখ ১২ হাজার টাকার বালি বিক্রি করেন। ৫৭ হাজার টাকা নগদ দেওয়ার পর ২ লাখ ৫৫ হাজার টাকা বকেয়া থাকে। গত ২ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় বাদীর ছেলে ইস্রাফিল হোসেন ( ১৫) বকেয়া টাকা আনার জন্য চেয়ারম্যানের ইটভাটায় গেলে টাকা না দিয়ে আসামিরা টালবাহানা শুরু করে। এক পর্যায়ে ইস্রাফিল তাদের পাওনা টাকা না নিয়ে যাবে না বললে আসামিরা তাকে মারধর করে। পরে তার মোবাইল কেড়ে নিয়ে ইটভাটার একটি ঘরে আটকে রাখে। বিষয়টি জানতে পেরে মজিদ তার ছেলে ইস্রাফিলকে ফোন করে। এসময় ফোনটি রিসিভ করে আসামি আবু তাহের। পরে তিনি বলেন, তোমার ছেলে চেয়ারম্যানের সঙ্গে বেয়াদবি করেছে, তাই তাকে ইটভাটায় আটকে রাখা হয়েছে। বাদী তাৎক্ষণিক ইটভাটায় এসে জানতে পারেন, তার ছেলেকে চেয়ারম্যান নিজের বাড়িতে নিয়ে গেছে। রাত ১০টার দিকে তিনি ছেলেকে আনতে চেয়ারম্যান রহিমের বাড়িতে গেলে তাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে এবং তার ছেলেকে মেরে ফেলার হুমকি দেয়।

এদিকে ছেলেকে না পেয়ে আব্দুল মজিদ বাদী হয়ে কৈখালী ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রহিমকে ১নং আসামি করে আটজনের নামে সাতক্ষীরা সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (আমালি আদালত-৫) আদালতে একটি অপহরণের অভিযোগ দায়ের করেন। বিচারক হাবিবুল্লাহ মাহমুদ বাদীর অভিযোগটি আমলে নিয়ে এজাহার হিসেবে গণ্য করার জন্য শ্যামনগর থানার অফিসার ইনচার্জকে নির্দেশ দেন। আদালতের নির্দেশে বৃহস্পতিবার বিকালে এই মামলা রেকর্ড করা হয়।

এ বিষয় কৈখালী ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রহিম বলেন, ‘মামলাটি ষড়যন্ত্রমূলক। আমার রাজনৈতিক প্রতিপক্ষরা আমাকে সামাজিকভাবে হেয় করার জন্য এ ধরনের মিথ্যা মামলা করেছে।’

শ্যামনগর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মোস্তফিজুর রহমান বলেন, আসামিদের আটক করাসহ অপহৃতকে উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।

/এআর/

samsung ad on Bangla Tribune

লাইভ

টপ