ফাঁসি বহালের রায় এখনও শোনেননি মুফতি হান্নান

গাজীপুর প্রতিনিধি১৭:০৩, মার্চ ২০, ২০১৭

মুফতি হান্নানসাবেক ব্রিটিশ হাইকমিশনার আনোয়ার চৌধুরীর ওপর গ্রেনেড হামলা ও তিনজন নিহতের ঘটনায় মৃত্যুদণ্ড পাওয়া হরকাতুল জিহাদ (হুজি) নেতা মুফতি আবদুল হান্নান তার রিভিউ আবেদন খারিজের সংবাদ সোমবার বিকাল ৪টা পর্যন্ত শোনেননি। তিনি কাশিমপুর হাই সিকিউরিটি কেন্দ্রীয় কারাগারের বন্দি।

কাশিমপুর হাই সিকিউরিটি কেন্দ্রীয় কারাগারের সুপার মিজানুর রহমান বলেন, ‘সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে রিভিউ আবেদনের রায় মুফতি হান্নান এখনও শোনেননি। কারণ, আদালতের এ সংক্রান্ত কোনও কাগজপত্র আমাদের কাছে আসেনি এবং তাকে রায় শোনানোর কোনও আদেশ আমরা পাইনি।’

জেল সুপার বলেন, ‘যেহেতু তিনি একটি স্পর্শকাতর মামলার দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি সেহেতু তাকে বিশেষ নিরাপত্তা দিয়ে রাখা হয়েছে। তাকে বেতার, টেলিভিশন অথবা অন্য কোনও গণমাধ্যম থেকে দূরে রাখা হয়েছে।’

তিনি জানান, ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি মুফতি হান্নান ২০১৩ সাল থেকে কাশিমপুরের হাইসিকিউরিটি কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দি রয়েছেন। তবে হাজিরা দেওয়ার জন্য তাকে এ কারাগার থেকে দেশের বিভিন্ন আদালতে নেওয়া হয়।

হান্নান ছাড়া মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত অন্য দুজন হলেন- শরীফ শাহেদুল আলম ওরফে বিপুল ও দেলোয়ার ওরফে রিপন।

প্রসঙ্গত, রবিবার সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ মুফতি হান্নানসহ তিন জঙ্গির মৃত্যুদণ্ড বহাল রেখে সর্বোচ্চ আদালতের দেওয়া রায় পুনর্বিবেচনার আবেদন (রিভিউ) খারিজ করে দেন। ২০০৪ সালের ২১ মে সিলেটে সাবেক ব্রিটিশ হাইকমিশনার আনোয়ার চৌধুরীর ওপর গ্রেনেড হামলা ও তিনজন নিহতের ঘটনায় তাদের মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়।

এদিকে, গত ৬ মার্চ মুফতি হান্নানকে ছিনিয়ে নিতে গাজীপুরের টঙ্গীতে প্রিজন ভ্যানকে লক্ষ্য করে বোমা ছোড়ে দুর্বৃত্তরা। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে একজন  ও পরে আরও  দু’জনকে নরসিংদী জেলা থেকে গ্রেফতার করা হয়।

/বিএল/

আরও পড়ুন:

সাংবাদিক শিমুলের মাথার গুলির সঙ্গে মেয়রের শটগানের গুলির মিল

‘সংরক্ষিত এলাকা’ বলেই তনু হত্যার তদন্তে বিলম্ব? 

লাইভ

টপ