Vision  ad on bangla Tribune

পাথরের দাম কমাতে ভারতীয় রফতানিকারকদের চিঠি

হিলি প্রতিনিধি১৪:৩১, এপ্রিল ২১, ২০১৭

হিলিতে পাথর আমদানির ট্রাকদফায় দফায় পাথরের মূল্য বৃদ্ধি নিয়ে অভিযোগ তুলেছেন হিলি স্থলবন্দরের পাথর আমদানিকারকরা। পাথরের রফতানি মূল্য কমাতে ভারতীয় পাথর রফতানিকারকদের চিঠি দিয়েছেন তারা। মূল্য কমানো না হলে বা এ নিয়ে আলোচনায় না বসলে আগামী রবিবারের পর থেকে হিলি স্থলবন্দর দিয়ে পাথর আমদানি করা সম্ভব হবে না বলেও আমদানিকারকরা জানিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার বিকালে হিলি স্থলবন্দর আমদানি-রফতানিকারক গ্রুপের পক্ষ থেকে ভারতের হিলি এক্সপোর্টার্স অ্যান্ড কাস্টমস ক্লিয়ারিং এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনকে চিঠি দেওয়া হয়েছে।

চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে, ভারতীয় রফতানিকারকদের পক্ষ থেকে কোনও কারণ ছাড়াই একদিন পর পর পাথরের রফতানি মূল্য বৃদ্ধি, পণ্য পরিবহনে ভারতীয় ট্রাকের ভাড়া বৃদ্ধির নামে পাথরের মূল্য বৃদ্ধি, সময়মতো পাথর রফতানি না করা, পাথর আসায় দেরির সময়ে বাংলাদেশে ডলারের মূল্য বৃদ্ধি এবং ভারতে ডলারের বাজার পড়ে যাওয়ার কারণে পাথর আমদানিকারকদের ক্ষতিগ্রস্থ হতে হচ্ছে। তাই আলোচনা সাপেক্ষে পাথর রফতানির মূল্য নির্ধারণের দাবি তোলেন আমদানিকারকরা। গত ১৯ এপ্রিল হিলি স্থলবন্দর আমদানি-রফতানিকারক গ্রুপের সভায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। আলোচনা করে এসব সমস্যার সমাধান না করলে ২৩ এপ্রিলের পর হিলি স্থলবন্দর দিয়ে পাথর আমদানি করা সম্ভব হবে না বলেও চিঠিতে জানানো হয়।

হিলি স্থলবন্দর আমদানি-রফতানিকারক গ্রুপের সভাপতি মো. হারুন উর রশীদ হারুন বাংলা ট্রিবিউনকে বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ‘পাথরের রফতানি মূল্য কমানোসহ বন্দর দিয়ে পাথর আমদানিতে বিরাজমান কিছু সমস্যার কথা উল্লেখ করে আমরা ভারতীয় পাথর রফতানিকারকদের চিঠি দিয়েছি। আমরা আশা করছি দ্রুত ভারতীয় পাথর রফতানিকারকরা এবিষয় নিয়ে আমাদের সঙ্গে বৈঠক করবেন এবং দ্রুত সমস্যার সমাধান হবে।’

/এফএস/

আরও পড়ুন- 


শহরকে ছাড়িয়ে যাচ্ছে গ্রামীণ অর্থনীতি

samsung ad on Bangla Tribune

লাইভ

টপ