খুলনায় ধর্ষণ মামলায় আটক আসামির বিরুদ্ধে চার্জশিট

Send
খুলনা প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ০২:২০, এপ্রিল ২২, ২০১৭ | সর্বশেষ আপডেট : ০২:২০, এপ্রিল ২২, ২০১৭

এনামুল হক টিটোখুলনায় এক মুক্তিযোদ্ধার নাতনী ও কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণ মামলায় আটক  আসামি এনামুল হক টিটোকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট দিয়েছে পুলিশ। মহানগরীর সোনাডাঙ্গা থানার এসআই তদন্তকারী কর্মকর্তা রাধেশ্যাম সরকার গত ১৪ এপ্রিল আদালতে এ চার্জাশিট দাখিল করেন।

সোনাডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মমতাজুল হক বলেন, ‘কলেজ ছাত্রী ধর্ষণের মামলাটির ফরেনসিক প্রতিবেদন পাওয়ার পরই আদালতে আসামি টিটোর নামে চার্জাশিট দাখিল করা হয়েছে। দেরিতে মেডিক্যাল করানোর কারণে রিপোর্টে তেমন কোনও আলামত ধরা পড়েনি। তবে, তদন্তে টিটোর বিরুদ্ধে ধর্ষণের প্রাথমিক প্রমাণ মিলেছে।’

চার্জশিটে উল্লেখ্য করা হয়েছে, গত ৬ জানুয়ারি পরিচয়ের পর কলেজ ছাত্রীকে মা বলে ডাকা ও ১৯ জানুয়ারি বেলা সাড়ে ১০টার দিকে সুকৌশলে কলেজ ছাত্রীকে সোনাডাঙ্গার দ্বিতীয় ফেজের ৯ নম্বর সড়কের ২৭২/ক নম্বর ৬ তলা ভবনের ছাদের ২টি কক্ষে নেয় এবং জোর করে বাদীকে ধর্ষণ করে। আসামি টিটো একজন সুচতুর, সুকৌশলী। আইনগত বিষয়ে জ্ঞান থাকার কারণে আসামি ঘটনাটি ধামা চাপা দেওয়ার জন্য বাদীকে বিয়ের প্রস্তাব, অথনৈতিক সহযোগিতা এবং বিভিন্ন ধরণের প্রলোভন দেখায় এবং বাদী যাতে ওই মুহুর্তে তার নামে মামলা না করে সে জন্য সময় ক্ষেপন করে। ওই সময়ে বাদীর ডাক্তারি পরীক্ষা হলে পজিটিভ প্রতিবেদন আসত। তদন্তকালে আসামি টিটো বিভিন্ন অপরাধের সঙ্গে জড়িত বলে স্থানীয়ভাবে জানা গেছে।

ওেই ছাত্রীর মা বলেন, ‘মেয়ের সঙ্গে অপরাধের বিচার পেতে চাই। কোনও প্রকার প্রলোভনের কাছে মাথানত করে এ ধরণের অন্যায়কে আর বাড়তে দিতে চাই না। একটি ঘটনার সুষ্ঠু বিচার হলে এ ধরণের অপরাধ সমাজ থেকে কমতে পারে।’

/এসএনএইচ/

লাইভ

টপ