একটি গোষ্ঠী না.গঞ্জকে বসবাসের অযোগ্য করতে চেয়েছে: রাব্বি

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি০৪:৪৭, এপ্রিল ২২, ২০১৭

কিছু মানুষ আছে যারা দেশটাকে পশুর দেশ বানাতে চায়। তেমনি নারায়ণগঞ্জেও একটি গোষ্ঠী আছে যারা নারায়ণগঞ্জকে মানুষের বসবাসের অযোগ্য করতে চেয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন নারায়ণগঞ্জের মেধাবী ছাত্র তানভীর মুহাম্মদ ত্বকীর বাবা ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব রফিউর রাব্বি। শুক্রবার সন্ধ্যায় নারায়ণগঞ্জ শহরের চাষাঢ়া শহীদ মিনারে সমগীত সাংস্কৃতিক প্রাঙ্গনের আয়োজনে ‘নতুন গানের উৎসব’ শীর্ষক  অনুষ্ঠানে তিনি এ মন্তব্য করেন।

রফিউর রাব্বি বলেন, ‘খুন, গুম, হত্যা করে মানুষকে দাবিয়ে রাখার চেষ্টা করছে ওই গোষ্ঠী। কিন্তু জীবন দিয়ে হলেও নারায়ণগঞ্জকে পশুর অভয়ারণ্য হতে দেবো না। মানুষের নারায়ণগঞ্জ গড়ে তুলবো। কোনও অপকৌশলকে এখানে টিকতে দেওয়া হবে না। মামলা হামলা করে আমাদের কণ্ঠ রোধ করা যাবে না। আমরা যারা হত্যাকাণ্ডের বিচার চাই এ থেকেও সরানো যাবে না। ত্বকী, আশিক, চঞ্চলসহ সব হত্যাকাণ্ডের বিচার আদায় করে ছাড়বো।’

এছাড়াও ‘চেতনা জাগাও সর্বপ্রাণে, বাঁচাও সুন্দরবন’ স্লোগানে উৎসবে শিল্পী কফিল আহমেদের গানের সংকলন ‘পাখির ডানায় দারুণ শক্তি, গরুর চোখে মায়া’ কে সমগীত সংগীত সম্মান প্রদান করা হয়।

এদিকে, শুক্রবার দুপুরে শহরের ডিআইটি বাণিজ্যিক এলাকাতে ‘নারায়ণগঞ্জের সর্বস্তরের মুসলমান’ ব্যানারে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে রফিউর রাব্বির শাস্তি দাবি করা হয়। সেখানে এমপি শামীম ওসমানও উপস্থিত ছিলেন। এর দুইদিন আগে বুধবার হেফাজতের একজন নেতা রাব্বির বিরুদ্ধে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানার অভিযোগ তুলে মামলাও করেন।

সমগীতের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইমেরিটাস অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, ‘রূপপুরের পারমানবিক চুল্লি যে কী ভয়ানক হবে সেটা আমরা কল্পনাও করতে পারি না। আমাদের লোকেরা সার কারখানা চলাতে পারে না। তারা কিনা পারমানবিক চুল্লি চালাবে। যেটা চালাতে গিয়ে জাপান তাদের এত শক্তি নিয়ে হিমশিম খেয়ে যাচ্ছে। তারা এখন দুঃখ করছে। কাল বৈশাখীর ঝড়ে এ রূপপুরে ক্রেন ভেঙে পড়েছে। সেখানে অনেক ক্ষতি হয়েছে। এরকমই হবে। রূপপুরে ঘটনা তো কল্পনাতেই আসে না। সুন্দরবন চলে গেলে বাংলাদেশে থাকবে কী? কেবল ঐতিহ্যের কথা নয়, এটা গৌরবের কথা নয়, এটা বাংলাদেশকে রক্ষা করছে। সে সুন্দরবন ঝড়, লবণাক্ত ঠেকাচ্ছে। সেটা যখন চলে যাবে তখন বাংলাদেশের অনেক অঞ্চল ডুবে যাবে।’

তিনি আরও বলেন, যখন যারা ক্ষমতায় আসছে তারা হচ্ছে শাসক শ্রেণি। আর মানুষ হচ্ছে বঞ্চিত। পুঁজিবাদের বিরুদ্ধে আমাদের মুক্তিযুদ্ধের চেতনার সমাজ গড়ে তুলতে হবে।

সমগীত সাংস্কৃতিক প্রাঙ্গণ নারায়ণগঞ্জ জেলার সভাপতি বিশ্বজিৎ দাস সোহাগের সভাপতিত্বে আরও উপস্থিত ছিলেন-নারায়ণগঞ্জ সাংস্কৃতিক জোটের উপদেষ্টা ভবানী শংকর রায়, কবি আরিফ বুলবুল সমগীত সাংস্কৃতিক প্রাঙ্গণ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি অমল আকাশ প্রমুখ।

/এসএনএইচ/

লাইভ

টপ