ফেনীতে এইচএসসির ফল বিপর্যয়

Send
ফেনী প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ০২:৩৫, জুলাই ২৪, ২০১৭ | সর্বশেষ আপডেট : ০২:৩৫, জুলাই ২৪, ২০১৭

 

এইচএসসিফেনীর নামিদামি অধিকাংশ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এইচএসসি ও সমমানে পরীক্ষার ফল বিপর্যয়ের ঘটেছে । রবিবার (২৩ জুলাই) ফলাফল ঘোষণার পর অনেক শিক্ষার্থী ও অভিভাবককে হতাশ হয়ে ফিরতে দেখা গেছে ।

সূত্রে জানা যায়, জেলার ফেনী সরকারি জিয়া মহিলা কলেজে ১ হাজার ৬১ পরিক্ষার্থীর মধ্যে পাস করেছে ৫৫৭ পরীক্ষার্থী। এ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কোনও জিপিএ-৫ নেই। জয়নাল হাজারী কলেজে ৩৯২ পরিক্ষার্থীর মধ্যে ২৬৪ পরিক্ষার্থী পাস করেছে। নাসির মেমোরিয়াল কলেজে ২০১ জনের মধ্যে ৫৫ জন, ছাগলনাইয়া সরকারি কলেজে ৯২০ জনের মধ্যে ১৯৯ পরিক্ষার্থী পাস করেছে। এ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে মাত্র ১জন শিক্ষার্থী জিপিএ-৫ লাভ করে।

ফুলগাজী সরকারি কলেজে ২৩৫ শিক্ষার্থীর মধ্যে ৮২ শিক্ষার্থী, পরশুরাম সরকারি কলেজে ৩২৮ শিক্ষার্থীর মধ্যে ১৬৬ শিক্ষার্থী, দাগনভূঞার ইকবাল মেমোরিয়াল কলেজে ৮৬০ জনের মধ্যে ৩৬৩ শিক্ষার্থী, সোনাগাজী সরকারি কলেজে ৩৯০ জনের মধ্যে ৯২ শিক্ষার্থী, বক্তারমুন্সি শেখ শহিদুল ইসলাম ডিগ্রি কলেজে ৪৩৩ শিক্ষার্থীর মধ্যে ১৩৩ শিক্ষার্থী পাস করেছে।
এদিকে, ফেনী আলিয়া মাদ্রাসা থেকে ২১২ শিক্ষার্থীর মধ্যে ১৯৩ শিক্ষার্থী পাস করে। এখানে ২ শিক্ষার্থী জিপিএ-৫ অর্জন করে। সোনাগাজী ফাজিল মাদ্রাসা থেকে ১৬৭ শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে ১৫৫ জন পাস করে। পরশুরাম ইসলামিয়া ফাযিল মাদ্রাসায় ৯১ শিক্ষার্থীর মধ্যে ৬৭ জন ও ফুলগাজীর মুন্সীরহাট ইসলামিয়া ফাযিল ডিগ্রি মাদ্রাসা থেকে মোট ৯১ জন পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে ৯০ জন পাস করে।

তবে ফলাফলে ব্যাতিক্রম রয়েছে মাদ্রাসা শিক্ষাবোর্ডের অধীনে ফেনী আল জামেয়াতুল ফালাহিয়া কামিল মাদ্রাসায়। সেখানে ২৪৬ শিক্ষার্থীর মধ্যে ২৩৬ শিক্ষার্থী পাশ করে। এ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে ২ শিক্ষার্থী জিপিএ-৫ লাভ করে । বখক্তার মুন্সি মাদ্রাসায় ৮২ শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে শতভাগ পাস করেছে।

অন্যদিকে, ফেনী গার্লস ক্যাডেট কলেজ থেকে শতভাগ পাসসহ ৫২ শিক্ষার্থী জিপিএ-৫ অর্জন করেছে। ফেনী সরকারী কলেজ থেকে ১ হাজার ২৫৭ শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে পাস করে ৮০১ জন। এদের মধ্যে মাত্র ২৯ শিক্ষার্থী জিপিএ-৫ অর্জন করে।

ফলাফল বিপর্যের কারণ হিসেবে ফেনী সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর আবুল কালাম আজাদ বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন,‘কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ডে ফল বিপর্যয়ের কারণে ফেনীতে এর প্রভাব পড়েছে। শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা আন্তরিক হলে এ বিপর্যয় কাটিয়ে উঠতে পারবে।’

/এআর/

লাইভ

টপ