গাইবান্ধায় স্ত্রীকে আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগে মামলা: এসআই দেবাশিষ গ্রেফতার

Send
গাইবান্ধা প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ২৩:২৭, আগস্ট ১২, ২০১৭ | সর্বশেষ আপডেট : ২৩:২৭, আগস্ট ১২, ২০১৭

এসআই দেবাশিষস্ত্রী লাবণী সাহাকে আত্মহত্যার প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগে দায়ের মামলায় গাইবান্ধার সদর থানার এসআই দেবাশিষ সাহা ও তার মামাকে গ্রেফতার করেছে রেলওয়ে পুলিশ। শনিবার (১২ আগস্ট) রাত সোয়া ৯টার দিকে সদর থানা থেকে দেবাশীষকে এবং তার মামা পুণ্য চন্দ্র সাহাকে শহরের বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়। রেলওয়ে থানা পুলিশের বোনারপাড়া থানার ওসি মো. আতাউর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।  

এর আগে, শনিবার বিকালে (১২ আগস্ট) লাবণী সাহাকে আত্মহত্যার প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগ এনে নিহতের বাবা গোবিন্দ চন্দ্র সাহা জামাই দেবাশিষ সাহাসহ ৬ জনকে আসামি করে গাইবান্ধার বোনারপাড়া রেলওয়ে থানায় মামলা করেন। লাবণীর বাবা মামলার এজাহারে উল্লেখ করেন, গত ৩ মার্চ লাবণীর সঙ্গে কুড়িগ্রামের বৈরাগীপাড়া এলাকার দেবাশিষের বিয়ে হয়।  বিয়ের সময় দেবাশিষ ঢাকায় সিআইডিতে কর্মরত ছিলেন। পরে তিনি বদলি হয়ে গাইবান্ধা সদর থানায় আসেন। লাবনীকে নিয়ে জেলার শহরের হাসপাতাল লেনের মাস্টারপাড়ার একটি ভাড়া বাসায় উঠেন। 

মামলার এজাহারে আরও উল্লেখ করা হয়, দেবাশিষ যখন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে লেখাপড়া করতেন তখন সুন্দরগঞ্জের ধোপাডাঙ্গা এলাকার এক তরুণীর সঙ্গে পরিচয় হয়। এক সময় তা প্রেমের সম্পর্কে গড়ায়। কিন্তু দেবাশিষ বিষয়টি গোপন করে লাবণীকে বিয়ে করেন। এক পর্যায়ে লাবণী ওই প্রেমের বিষয়টি জেনে গেলে দেবাশিষ তাকে মানসিক ও শারীরিক নির্যাতন শুরু করে। ঘটনার দিন বৃহস্পতিবার সকালে (১০ আগস্ট) দেবাশিষ লাবণীকে মারধর করে। পরে বাসায় লাবণীকে রেখে দরজায় তালা দিয়ে চলে যায় দেবাশিষ। এভাবে আগেও সে বেশ কিছুদিন লাবণীকে ঘরে আটক রেখে রাতেও বাইরে থাকতো। 

বৃহস্পতিবার সকালে ঘটনার পর দুপুরে লাবণী মোবাইল ফোনে তার এক আত্মীয়কে ডেকে ও স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় তালা খুলে ঘর বের হন। পরে ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করেন তিনি। খবর পেয়ে পুলিশ লাবণীর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। ময়নাতদন্ত শেষে লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হলে গাইবান্ধা পৌর শশ্মানে তার সৎকার করা হয়। এ ঘটনায় জিআরপি থানায় অপমৃত্যুর মামলা হয়। 

রেলওয়ে থানার গাইবান্ধার বোনারপাড়া থানার ওসি আতাউর রহমান বলেন, ‘লাবণীকে আত্মহত্যার প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগে তার বাবা বাদী হয়ে দেবাশিষসহ ৬ জনকে আসামি করে মামলা করেছেন। মামলার পর দেবাশীষ ও তার মামাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। রবিবার (১৩ আগস্ট) সকালে তাদের আদালতে হাজির করা হবে। অন্য আসামিদের গ্রেফতারে চেষ্টা চালানো হচ্ছে ‘ 

/এএম

 

লাইভ

টপ