মৌলভীবাজারে হারুন হত্যায় দুজনের যাবজ্জীবন

Send
মৌলভীবাজার প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ২৩:১১, এপ্রিল ১৭, ২০১৮ | সর্বশেষ আপডেট : ২৩:১৬, এপ্রিল ১৭, ২০১৮

আদালত

মৌলভীবাজারে হারুন অর রশিদ হত্যা মামলায় দুই জনকে যাবজ্জীবন দিয়েছেন আদালত। মঙ্গলবার (১৭ এপ্রিল) দুপুরে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম এ আদেশ দেন।

যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন– বড়লেখা উপজেলার পুকুরিয়া গ্রামের আব্দুল বারির ছেলে আছার উদ্দিন (৩০) এবং একই গ্রামের মৃত আব্দুল মুতালিবের ছেলে সমজ আলী (২০)। মামলার অপর দুই আসামি বদরুল ইসলাম ও হারুনকে খালাস দিয়েছেন আদালত।

রাষ্ট্রপক্ষের অতিরিক্ত আইনজীবী কৃপাসিন্ধু দাশ জানান, ২০০৬ সালের ২৩ মে আছার উদ্দিন এবং বড়লেখা উপজেলার ছাতারখাই গ্রামের হারুন অর রশিদের মধ্যে টাকা নিয়ে বাকবিতণ্ডা হয়। এরপর আসামিরা হারুনকে গলায় রশি দিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে এলাকায় প্রচারণা চালায়, রশিদ আত্মহত্যা করেছেন। পরে পুলিশ ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকায় আসামি আছার উদ্দিন, সমজ আলী, বদরুল ইসলাম এবং হারুনকে গ্রেফতার করে।

সাক্ষীদের জবানবন্দি শেষে আছার উদ্দিন ও সমজ আলী দোষী সাব্যস্ত হওয়ায় বিচারক তাদের যাবজ্জীবন দেন। এ ছাড়া, তাদের ২৫ হাজার টাকা করে জরিমানা, অনাদায়ে আরও ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেন।

আদালতে আসামিপক্ষে আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট ডাডলী ডেরিক প্রেন্টিস ও আশরাফ উদ্দিন চৌধুরী।

২০০৬ সালের ২৩ মে বড়লেখা উপজেলার ছাতারখাই গ্রামের আব্দুল শুক্কুরের পুকুরের পাড় থেকে একই গ্রামের আব্দুল আহাদের ছেলে হারুন অর রশিদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। পরে ২৬ মে আহাদ বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিদের আসামি করে বড়লেখায় থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

/এমএ/

লাইভ

টপ