জুয়া খেলা বাধা দেওয়ায় মা-মেয়ে অবরুদ্ধ

Send
নীলফামারী প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ০৩:০২, সেপ্টেম্বর ১৫, ২০১৮ | সর্বশেষ আপডেট : ০৩:৩৭, সেপ্টেম্বর ১৫, ২০১৮

 

নীলফামারীনীলফামারী জেলার ডিমলায় জুয়া খেলায় বাধা ও পুলিশকে সাক্ষী দেওয়ার অভিযোগে আব্দুল মান্নানের স্ত্রী ফারজানা বেগম (২৪) ও তার এক বছরের কন্যা মিথিলা আক্তারকে অবরুদ্ধ করার ঘটনা ঘটেছে। বৃহস্পতিবার (১৩ সেপ্টেম্বর) গয়াবাড়ী ইউনিয়নের তিস্তার বাধ সংলগ্ন এলাকায় বিকাল সাড়ে ৪টা থেকে রাত সাড়ে ৯টা পর্যন্ত তাদের অবরুদ্ধ করে রাখা হয়। ডিমলা থানার ওসি মফিজ উদ্দিন শেখ এই তথ্য জানিয়েছেন।




পুলিশ ও স্থানীয়ারা জানায়, জুয়ারিরা আব্দুল মান্নানের বসতবাড়ি সংলগ্ন ক্লাব তৈরি করতে গেলে আব্দুল মান্নানের স্ত্রী ফারজানা তাতে বাধা দেয়। এতে স্থানীয় বখাটেরা ফারজানা ও তার সন্তানকে অবরুদ্ধ করে মারধর করে। মা ও মেয়ে বর্তমানে ডিমলা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।
এর আগে, গত ২৬ আগস্ট রাতে গয়াবাড়ী ইউনিয়নের তিস্তা নদীর পাড়ে জুয়ারি কাওসারের নেতৃত্বে লোকজন জুয়া খেলতে বসলে সেখানে গয়াবাড়ী ইউনিয়ন যুবলীগের নেতাকর্মী বাধা দিতে গেলে উভয়পক্ষের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনার ঘটে। এ সময় জুয়ারিদের হাতে শওকত এবং সেলিম নামের দুজন আহত হন।
এ ঘটনায় আব্দুল মান্নান পুলিশের কাছে সাক্ষী দিলে জুয়ারিরা তার বসতবাড়ির উঠানে ক্লাব ঘর তৈরি করতে যায়। এ ব্যাপারে আব্দুল মান্নানের ভাই বাদী হয়ে ইব্রাহিম আলীসহ ৮ জনকে আসামি করে ডিমলা থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।
ডিমলা থানার ওসি মফিজ শেখ বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। অভিযোগের বিষয়ে তদন্ত চলছে। সাক্ষী প্রমাণ সাপেক্ষে প্রযোজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

/এআর/

লাইভ

টপ