সাবেক ছাত্রলীগ নেতা সোহেলকে পরিকল্পিতভাবে হত্যার দাবি পরিবারের

Send
নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম
প্রকাশিত : ০৯:০৬, জানুয়ারি ০৯, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৪:১৮, জানুয়ারি ০৯, ২০১৯

 

সংবাদ সম্মেলনে কান্নায় ভেঙে পড়েন নিহত সোহেলের পরিবারপাহাড়তলী বাজারে ‘গণপিটুনিতে’ নিহত সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মহিউদ্দিন সোহেলকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে বলে দাবি করেছে তার পরিবার। মঙ্গলবার (৮ জানুয়ারি) বিকালে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তার ছোট ভাই শাকিরুল ইসলাম শিশির এ দাবি করেন।

সংবাদ সম্মেলনে শিশির বলেন, ‘মহিউদ্দিন সোহেল চাঁদাবাজ কিংবা সন্ত্রাসী ছিলেন না। তার পারিবারিক ঐতিহ্য আছে। তার সাংগঠনিক ভিত্তি ছিল। তিনি বাংলাদেশ রেলওয়ের একজন প্রথম শ্রেণির ঠিকাদার ছিলেন। পাহাড়তলী বাজার ও আশপাশের এলাকাকে মাদকমুক্ত করার ঘোষণা দেওয়ায় আমার ভাইকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে।’

এর আগে সোমবার (৭ জানুয়ারি) সকালে নগরীর ডবলমুরিং থানাধীন পাহাড়তলী বাজারের পাশে রেললাইন থেকে মহিউদ্দিন সোহেলের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। ঘটনার পর পুলিশ জানিয়েছিল, চাঁদাবাজির অভিযোগে পাহাড়তলী বাজারের ব্যবসায়ী ও স্থানীয়রা মহিউদ্দিন সোহেলকে গণপিটুনি দিলে তার মৃত্যু হয়।

লিখিত বক্তব্যে শিশির বলেন, ‘স্থানীয় কাউন্সিলর সাবের সওদাগরের কর্তৃত্বে ও সাবেক জামায়াত নেতা, বর্তমানে স্থানীয় জাতীয় পার্টির নেতা ওসমান খানের পৃষ্ঠপোষকতায় রেলওয়ের জায়গায় গড়ে ওঠা অনৈতিক ব্যবসার আখড়া ভেঙে দিয়েছিল সে। এ ঘটনায় স্থানীয় ভূমিদস্যু, মাদক ও অনৈতিক ব্যবসায়ীদেরও রোষানলে পড়ে আমার ভাই। তারাই পরিকল্পিতভাবে তাকে হত্যা করেছে।’

সংবাদ সম্মেলনে শিশির ছাড়াও সোহেলের বাবা আবদুল বারেক, মা ফিরোজা বেগম, দুই বোন রাজিয়া সুলতানা ও নাজনীন সুলতানা, স্ত্রী নিগার সুলতানা ও তার দুই শিশু সন্তান উপস্থিত ছিলেন। তারা সোহেল হত্যার ঘটনায় সুষ্ঠু তদন্তপূর্বক জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।

/এসএসএ/এমওএফ/

লাইভ

টপ