রূপগঞ্জে ইভটিজিংয়ে বাধা দেওয়ায় স্কুলছাত্রকে খুনের অভিযোগ

Send
নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ২১:৫৪, জানুয়ারি ১২, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২১:৫৯, জানুয়ারি ১২, ২০১৯

Narayanjangনারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে ইভটিজিংয়ে বাধা দেওয়ায় বখাটে মেহেদী হাসানের ছুরিকাঘাতে আসলাম হোসেন নামে এক স্কুলছাত্র নিহত হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। শনিবার (১২ জানুয়ারি) দুপুর ১২টায় উপজেলার চনপাড়া পুনর্বাসন কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ছাত্রের পরিবারের বরাত দিয়ে রূপগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই ) রিপন আলী খান জানান, গত চার মাস পূর্বে চনপাড়া পুনর্বাসন কেন্দ্রের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের এক দিনমজুরের কিশোরী কন্যাকে রাস্তায় প্রকাশ্যে শ্লীলতাহানি করে একই ওয়ার্ডের বখাটে যুবক সিদ্দিক মিয়ার ছেলে মেহেদী হাসান (১৮)। সে সময় স্থানীয় গিয়াসউদ্দিনের ছেলে ও নবকিশলয় স্কুলের সপ্তম শ্রেণির শিক্ষার্থী আসলাম (১৫) তাকে বাধা দেয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে মেহেদী হাসান আসলাম হোসেনকে কুপিয়ে আহত করে। পরে আসলামের পরিবারের লোকজন ও আত্মীয়স্বজনরা মেহেদীকে ধরে পিটুনি দেয়। এ নিয়ে তাদের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল।

এসআই রিপন আলী খান আরও জানান, মেহেদী হাসান আসলামকে খুন করবে বলে হুমকি দেয় এবং খোঁজাখুঁজি করে। এ কারণে প্রাণভয়ে আসলাম রূপগঞ্জ থানায় জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে একটি সাধারণ ডায়েরিও করে। এমনকি মেহেদীর ভয়ে আসলাম তার গ্রামের বাড়ি ফরিদপুর পালিয়ে যায়। গ্রামে ৪১ দিন তাবলিগ জামায়াতে অংশ নিয়ে গত শুক্রবার রাতে সে চনপাড়ায় ফিরে আসে। এ খবর পেয়ে মেহেদী প্রতিশোধ নিতে মরিয়া হয়ে ওঠে ও বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি করতে থাকে। শনিবার দুপুর ১২টার দিকে আসলামকে মনির হোসেনের বাড়ির সামনে একা পেয়ে মেহেদী ধারালো ছুরি দিয়ে পেটে আঘাত করে। মুমুর্ষূ অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আসলাম হোসেনকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ ঘটনায় হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এমএ হক বাংলা ট্রিবিউনকে জানান, বখাটে মেহেদী হাসানকে গ্রেফতারের জন্য পুলিশ চেষ্টা করছে।

 

 

/এমএএ/

লাইভ

টপ