পঞ্চগড়ে ইট বোঝাই ট্রাক্টর চাপায় চালক ও হেলপার নিহত

Send
পঞ্চগড় প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ০১:২০, জানুয়ারি ১৩, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ০১:২৪, জানুয়ারি ১৩, ২০১৯



পঞ্চগড় হাসপাতালে দুর্ঘটনায় নিহতদের স্বজনদের ভিড়পঞ্চগড়ে পৃথক তিনটি সড়ক দুর্ঘটনায় দুই জন নিহত ও পাঁচ জন আহত হয়েছেন। গুরুতর আহত তিন জনকে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। অন্যরা পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। শনিবার (১২ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় এ দুর্ঘটনাগুলো ঘটে।

নিহতরা হলেন- ট্রাক্টর চালক মনছুর আলী (৪২) এবং হেলপার ছত্রিশ চন্দ্র (৩৮)। এদের মধ্যে চালকের বাড়ি মিঠাপুকুরের শুকুরুর দোকান এলাকায়। সে ওই এলাকার মকবুল হোসেনের পুত্র। ছত্রিশের বাড়ি বোদা উপজেলার ময়দানদিঘী ইউনিয়নের ভিমপুকুর এলাকায়। সে ওই এলাকার আলসিয়ার পুত্র।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, পঞ্চগড়-ঢাকা মহাসড়কের পাইকপাড়া এলাকায় (জেমজুটের সামনে) ইট বোঝাই একটি ট্রাক্টরের সামনের চাকা খুলে যায়। এতে ট্রাক্টরটি সড়কের পাশে একটি পুকুরে উল্টে যায়। এতে ট্রাক্টর ও ইটের চাপায় চালক মনছুর আলী (৪২) এবং হেলপার ছত্রিশ চন্দ্র (৩৮) ঘটনাস্থলেই মারা যান। অপর হেলপারকে এখনও পাওয়া যায়নি।

খবর পেয়ে পঞ্চগড় ও বোদা ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা লাশ উদ্ধার করে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়।

অপরদিকে পঞ্চগড় শহরের ব্যারিস্টার বাজার নামক স্থানে ট্রাকের ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী পঞ্চগড় নতুনবস্তি এলাকার নিন্দু মাহানের ছেলে ব্যবসায়ী আব্দুস সালাম (৪৫), তার স্ত্রী মুন্নী আখতার (৩৮) গুরুতর আহত হন। তাদের প্রথমে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে ও পরে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

জেলার সদর উপজেলার সাতমেরা ইউনিয়নের ময়নাগুড়ি ক্যাম্পের সামনে অপর একটি দুর্ঘটনায় ট্রাকের ধাক্কায় ভ্যানের তিন যাত্রী আহত হয়। আহতরা হলেন- জেলার সদর উপজেলার মিরগড় ডাঙ্গাপাড়া এলাকার তছিরুল ইসলাম (৪৫) ও তার মেয়ে বিথি আক্তার (১৮) ও জেলার সদর উপজেলার মাগুরা ধনিপাড়া এলাকার কবির হোসেনের ছেলে রুহুল আমিন (৪০)। এদের মধ্যে তছিরুল ইসলামকে (৪৫) প্রথমে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে পরে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. তৌহিদুল ইসলাম দুই জন নিহত ও ছয় জন আহতের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, গুরুতর আহত তিন জনকে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।

দুর্ঘটনার পর খবর পেয়ে পঞ্চগড়ের জেলা প্রশাসক সাবিনা ইয়াসমিন আধুনিক সদর হাসপাতালে নিহত ও আহতদের দেখতে যান। এ সময় তিনি নিহতদের পরিবারকে আর্থিক সাহায্য প্রদানের আশ্বাস জানিয়ে দুর্ঘটনার কারণ খতিয়ে দেখতে তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে বলে জানান।

/টিটি/

লাইভ

টপ