আদালতের নির্দেশ উপেক্ষা করে জমি দখলের চেষ্টা

Send
জামালপুর প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১০:২৮, জানুয়ারি ১৩, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১০:৪১, জানুয়ারি ১৩, ২০১৯

আদালতআদালতের নির্দেশ অমান্য করে জামালপুর শহরতলীর শেখেরভিটায় একটি চক্র বিরোধপূর্ণ জমি দখলের চেষ্টা করছে। স্থানীয় একটি ভূমিদস্যু চক্রের যোগসাজশে কোটি টাকা মূল্যের ওই জমি দখলের পাঁয়তারা করছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

জমির মালিক গোলাম মোস্তাফা সাদারের অভিযোগ, জামালপুর শহরের শেখেরভিটায় সিংহজানীর মৌজার বিআরএস ৯০৫ খতিয়ানভুক্ত ১০৬০৭ ও ১০৬০৮ নং দাগের ৯৩.৯৩ শতাংশের কাতে ৪২ শতাংশ জমি পৈত্রিক সূত্রে তারা মালিক। এই জমি নিয়ে দুইপক্ষের মধ্যে মামলা চলছে। মামলা বিচারাধীন থাকা অবস্থায় শেখেরভিটার এলাকার মমতাজ আলী বিরোধপূর্ণ জমি দখলের চেষ্টা করেন।

মমতাজ আলী ও তার লোকজন যাতে এই বিরোধপূর্ণ জমি দখল করতে না পারেন সেজন্য সাদার ভাই মোরাদ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে একটি মামলা করেন। এরপর আদালত বিরোধপূর্ণ জমির ওপর ১৪৪ ধারা জারি এবং দখল বিষয়ে জামালপুর সদর উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) দখল বিষয়ে তদন্তপূর্বক প্রতিবেদন দাখিল এবং শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখর জন্য সদর থানার অফিসার ইনচার্জকে নিদের্শ দেন।

আদালতের নিদের্শের পরও মমতাজ আলী ২৪ ডিসেম্বর জমিদখলের চেষ্টা করেন। এই ঘটনার পর গোলাম মোস্তফা সাদার ভাই মোরাদ ২৬ ডিসেম্বর জামালপুর সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। তিনি অভিযোগ করেন, মামলা বিচারাধীন থাকা অবস্থায় মমতাজ আলী স্থানীয় প্রভাবশালী একটি ভূমিদস্যু চক্রের সহায়তায় তাদের জমি দখলের পাঁয়তারা করছে। কিন্তু পুলিশ কোনও ব্যবস্থা নিচ্ছেন না।

এ বিষয়ে মমতাজ আলীর কাছে জানতে চাইলে বলেন, তারা এই জমি সিনিয়র জেলা জজ আদালত থেকে ২০০২ সালে একতরফা রায় পেয়েছেন। তারা ছানী মোকদ্দমা করেছেন। এটা নিষ্পত্তির বিষয়টি সময়সাপেক্ষ। এর জন্য তারা অপেক্ষা করতে পারেন না। আর উচ্চ আদালত চিরস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে। নিম্ন আদালত ১৪৪ ধারা দিয়েছে। বিষয়টি তারা আইনগতভাবে দেখবে।

এ বিষয়ে সদর থানার মামলার তদন্তকারী অফিসার পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) সোহেল সিদ্দিকী বলেন, বিরোধপূর্ণ জমি নিয়ে দুই পক্ষের মামলা-মোকদ্দমা রয়েছে। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে। তদন্ত শেষ হলে আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করা হবে।

 

 

/এসটি/

লাইভ

টপ