মসিক নির্বাচনে আচরণবিধি মানছেন না প্রার্থীরা

Send
আতাউর রহমান জুয়েল, ময়মনসিংহ
প্রকাশিত : ২৩:১১, এপ্রিল ০৮, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২৩:৩২, এপ্রিল ০৮, ২০১৯

রাস্তার বিদ্যুতের খুঁটিতে ঝুলছে মসিক নির্বাচনে অংশ নিতে ইচ্ছুক প্রার্থীদের পোস্টার

ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আচরণবিধি না মেনে চলার অভিযোগ উঠেছে নির্বাচনে অংশ নেওয়া মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীদের বিরুদ্ধে। নির্বাচন কমিশনের নির্দেশনা অনুযায়ী বেঁধে দেওয়া আজ ৭ এপ্রিল সময়ের মধ্যেও পোস্টার, ব্যানার ও ফেস্টুন সরিয়ে নেননি তারা।  আজ  সোমবার (৮ এপ্রিল) নগরীর বিভিন্ন পয়েন্ট পরিদর্শন করে দেখা গেছে, মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীদের পোস্টার, ব্যানার ও ফেস্টুন আগের মতোই ঝুলছে। নির্দেশ দিলেও সে নির্দেশ বাস্তবায়নে তেমন কোনও ভূমিকাই নেয়নি নির্বাচনের সম্ভাব্য প্রার্থীরা। 

দেয়ালে এখনও লাগানো আছে মসিক নির্বাচনে অংশগ্রহণে ইচ্ছুক প্রার্থীদের পোস্টার

আজ ৮ এপ্রিল সোমবার ছিল মসিক নির্বাচনে প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন। এর আগে ৭ এপ্রিলের মধ্যে নগরী থেকে পোস্টার, ব্যানার ও ফেস্টুন সরিয়ে নেওয়ার জন্য নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে মাইকিং ও ক্যাবল টিভি নেটওয়ার্কে প্রচারণা চালানো হয়। সোমবার বিকেল পর্যন্ত নগরীর বিভিন্ন পয়েন্টে মেয়র ও কাউন্সিল প্রার্থীদের পোস্টার, ব্যানার ও ফেস্টুন সাঁটানো দেখা গেছে। 

এ বিষয়ে আওয়ামী লীগ মনোনীত সরকারদলীয় প্রার্থী সাবেক পৌরমেয়র ইকরামুল হক টিটু বলেন, নির্বাচন কমিশনের নির্দেশনা অনুযায়ী ৭ এপ্রিলের মধ্যেই নগরীর বিভিন্ন পয়েন্ট থেকে পোস্টার, ব্যানার ও ফেস্টুন সরিয়ে নেওয়ার জন্য কর্মীদের বলা হয়েছিল। অনেক স্থান থেকে সরিয়ে নিয়েছে, হয়তোবা কিছু জায়গা থেকে এখনও সরিয়ে নিতে পারেনি। দ্রুত এসব পোস্টার, ব্যানার ও ফেস্টুন সরিয়ে নেওয়া হবে। 

নির্বাচন কমিশনের নির্দেশ সত্ত্বেও দেয়াল থেকে পোস্টার সরাননি মসিক নির্বাচনের সম্ভাব্য প্রার্থীরা

জাতীয় পার্টির মনোনীত মেয়র প্রার্থী জাহাঙ্গীর আহমেদও স্বীকার করেছেন তার সব পোস্টার, ব্যানার ও ফেস্টুন এখনও সরিয়ে নেওয়া সম্ভব হয়নি। তিনি বলেন, ‘মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার বিষয়ে ব্যস্ততার কারণে অনেক জায়গায় এখনও পোস্টার, ব্যানার ও ফেস্টুন রয়ে গেছে। দ্রুতই নির্বাচন কমিশনের নির্দেশনা অনুযায়ী পোস্টার, ব্যানার ও ফেস্টুন সরিয়ে নেওয়া হবে।’

নির্বাচন কমিশন নির্দেশ দিলেও এখনও পোস্টার সরিয়ে নেননি প্রার্থীরা

এমন পোস্টার দেখা গেছে অন্য মেয়র প্রার্থীদেরও। তবে শুধু মেয়র প্রার্থীরাই নন, কাউন্সিলর প্রার্র্থীরাও নির্বাচন কমিশনের নির্দেশনা মানেননি। নগরীর অলিগলিতে তাদের পোস্টার, ব্যানার ও ফেস্টুন সাঁটানো অবস্থায় দেখা গেছে। ৯ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী আল মাসুদ জানান, সময়ের অভাবে বেশকিছু পোস্টার, ব্যানার ও ফেস্টুন সরানো সম্ভব হয়নি। দ্রুতই এসব অপসারণ করার অঙ্গীকার করেন তিনি। একই কথা বলেছেন ৩ নম্বর সংরক্ষিত ওয়ার্ডের নির্বাচনে অংশ নেওয়া নারী কাউন্সিলর প্রার্থী হামিদা পারভীন।

 নির্বাচন কমিশন নির্দেশ দিলেও এখনও পোস্টার অপসারণ করেননি মসিক নির্বাচনের সম্ভাব্য প্রার্থীরা

মসিক নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার আলীমুজ্জামান বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, নির্বাচন কমিশনের নির্দেশনা অনুযায়ী এখনও যেসব প্রার্থী পোস্টার, ব্যানার ও ফেস্টুন সরিয়ে নেননি তাদের বিরুদ্ধে অভিযান চালিয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আচরণবিধি ভঙ্গকারীদের কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না বলেও হুঁমিয়ারি দিয়েছেন তিনি।    

 

/টিএন/

লাইভ

টপ