কুমিল্লায় স্থগিত কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ, ভোটারদের কেন্দ্রে যেতে বাধা দেওয়ার অভিযোগ

Send
কুমিল্লা প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১২:৩৬, এপ্রিল ১৭, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১২:৪০, এপ্রিল ১৭, ২০১৯

চন্দনপুর মনির উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রচতুর্থ ধাপের পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে কুমিল্লার স্থগিত হওয়া দুটি কেন্দ্রে আজ বুধবার (১৭ এপ্রিল) ভোটগ্রহণ চলছে। কেন্দ্র দুটি হলো চন্দনপুর মনির আহমদ উচ্চ বিদ্যালয় ও বৈদ্যনাথপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। ভোট দিতে কেন্দ্রে যেতে বিদ্রোহী প্রার্থী তাজুল ইসলাম সমর্থিত ভোটারদের বাধা দেওয়ার অভিযোগ করা হয়েছে আওয়ামী লীগের প্রার্থী রতন শিকদারের বিরুদ্ধে। যদিও আওয়ামী লীগের প্রার্থী এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী (আনারস প্রতীক) প্রার্থী তাজুল ইসলামের অভিযোগ, ‘আওয়ামী লীগের প্রার্থী রতন শিকদারের ক্যাডার বাহিনীর নেতা লতিফ চেয়ারম্যান ও বাতেন চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে শিবনারায়ন ও চন্দনপুর গ্রামের ভোটারদের কেন্দ্রে আসতে বাধা দেওয়া হচ্ছে। আমি নিজে বিজিবি সদস্যদের কাছে বিষয়টি নিয়ে অভিযোগ করেও কোনও ফল পাইনি। এটা একটা প্রহসনের নির্বাচন। প্রাশাসন পরিকল্পিতভাবে একটি সাজানো নির্বাচন করছে এখানে।’

এই অভিযোগ অস্বীকার করে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী রতন শিকদার বলেন, ‘স্বতন্ত্র প্রার্থী পরাজয় নিশ্চিত জেনে এসব অভিযোগ করছেন।’

এদিকে, চন্দনপুর মনির উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার রাশেদুল ইসলাম বলেন, ‘সকাল সাড়ে ১০টা পর্যন্ত ৩ হাজার ১৫২ ভোটের মধ্যে এই কেন্দ্রে ৯৭৯টি ভোট পড়েছে। নির্বাচনের পরিবেশ সুষ্ঠু রয়েছে।’ তবে বেলা ১১টা ১২মিনিট পর্যন্ত এই কেন্দ্রে কোনও পুরুষ ভোটারের উপস্থিতি চোখে পড়েনি।’

উল্লেখ্য, কুমিল্লার মেঘনা উপজেলায় গত ৩০ মার্চ অনুষ্ঠিত নির্বাচনে চন্দনপুর মনির আহমদ উচ্চ বিদ্যালয় বিদ্যালয় ও বৈদ্যনাথপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র দুটিতে গোলযোগের কারণে ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়। আজ এই দুটি কেন্দ্রে পুনরায় ভোটগ্রহণ হচ্ছে।

/আইএ/

লাইভ

টপ