যশোরে মানবপাচার মামলায় চারজনের যাবজ্জীবন

Send
যশোর প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৯:৩৭, এপ্রিল ১৭, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:৪৫, এপ্রিল ১৭, ২০১৯

আদালতমানবপাচার মামলায় যশোরে চারজনের যাবজ্জীবন সাজা হয়েছে। বুধবার যশোরের নারী ও শিশু নির্যাতন এবং মানবপাচার দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক টিএম মুছা এ দণ্ডাদেশ দেন।

সাজাপ্রাপ্ত আসামিরা হচ্ছেন সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার হেলাতলা গ্রামের নজরুল ইসলাম, তার স্ত্রী ফুলজান বিবি, কার্তিক চন্দ্র হালদার ও একই জেলার কুশোডাঙ্গা গ্রামের নুর হোসেন। তাদের মধ্যে প্রথম দুইজন পলাতক রয়েছেন।

আদালতের বিশেষ পাবলিক প্রসিকিউটর এম ইদ্রিস আলী জানান, ২০০৮ সালে নজরুল ইসলাম ও তার স্ত্রী ফুলজান বিবি সাতক্ষীরা থেকে যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলার চন্ডীপুর গ্রামে আসেন দিনমজুরের কাজ করতে। তারা ওই গ্রামের একটি বাড়ি ভাড়া নিয়ে সেখানে থাকতেন। ওই বছরের ১৪ জানুয়ারি তারা বাড়িওয়ালার দুই মেয়েকে ঢাকায় ভালো কাজ দেওয়ার কথা বলে গোপনে বাড়ি থেকে নিয়ে যায়। এরপর সাতক্ষীরা সীমান্ত দিয়ে তাদের ভারতে পাচার করে। এ ঘটনায় ওই দুই বোনের বাবা ১৭ জানুয়ারি ৯ জনের বিরুদ্ধে বাঘারপাড়া থানায় মামলা করেন। তদন্ত শেষে বাঘারপাড়া থানা পুলিশ ২০০৮ সালের ১৮ সেপ্টেম্বর নজরুল ইসলাম, তার স্ত্রী ফুলজান বিবি, কার্তিক চন্দ্র হালদার ও নুর হোসেনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেন। অন্য পাঁচ জনের অব্যাহতির আবেদন করেন।

আদালত অভিযুক্ত সবার বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করে মামলার কার্যক্রম শুরু করেন। দীর্ঘ বিচার শেষে বুধবার আদালত উল্লিখিত চারজনের মানবপাচার দমন আইনের ৫/১ ধারায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ড, দশ হাজার টাকা করে জরিমানা, অনাদায়ে প্রত্যেকের ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেন। একই আইনের ৬/১ ধারায় প্রত্যেকের ১২ বছর করে কারাদণ্ডাদেশ দেন। সাজা একইসঙ্গে চলবে বলে জানান আইনজীবী এম ইদ্রিস আলী। তিনি জানান, ৯ আসামির মধ্যে বাকি পাঁচজনকে বেকসুর খালাস দেওয়া হয়েছে।

 

/এফএস/

লাইভ

টপ