পাকিস্তানি কিশোরীকে ধর্ষণ মামলার আসামি কুড়িগ্রাম থেকে গ্রেফতার

Send
সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ২০:০১, এপ্রিল ২৩, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:৩০, এপ্রিল ২৩, ২০১৯

গ্রেফতার পাকিস্তানি কিশোরী ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি আল আমিনকে (২০) গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১২। গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে মঙ্গলবার দুপুরে কুড়িগ্রাম জেলার রাজিবপুর থানার পঞ্চনগর গ্রামে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতার আল আমিন টাঙ্গাইলের গোপালপুরের আবুল হোসেনের ছেলে। মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) বিকেলে সলঙ্গা থানার হাটিকুমরুলে র‌্যাব-১২ সিরাজগঞ্জ সদর দফতরে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়। র‌্যাব-১২ অধিনায়ক লে. কর্নেল আবদুল্লাহ মোমেন, পিপিএম ও সিরাজগঞ্জের ক্যাম্প কমান্ডার এসএসপি প্রণব কুমার সরকার সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন।
প্রেস ব্রিফিংয়ে র‌্যাব জানায়, আল আমিনের এক আত্মীয় চাকরির সুবাদে পাকিস্তানে থাকায় (২০ বছর আগে) এক পাকিস্তানি নারীকে বিয়ে করেন। তাদের একটি মেয়ে রয়েছে। ৫ মাস আগে ওই পাকিস্তানি নারী তার কিশোরী মেয়েকে নিয়ে টাঙ্গাইলের গোপালপুরে ভাসুরের বাড়িতে বেড়াতে আসেন। সেখানে তার ভাসুরের আত্মীয় আবুল হোসেনের ছেলে মো. আল আমিন (২০) ওই কিশোরীকে প্রেমের প্রস্তাব দেয়। এতে রাজি না হওয়ায় গত ১৬ এপ্রিল আল আমিন ও তার সহযোগীরা মেয়েটিকে অপহরণ করে। এরপর নির্জন স্থানে নিয়ে তারা মেয়েটির ওপর শারীরিক নির্যাতন চালায়। অপহৃত ওই কিশোরীকে পরদিন জামালপুরের সরিষাবাড়ীর মহিষাকান্দি থেকে উদ্ধার করা হয়। ভিকটিমের মা এ ঘটনায় বাদী হয়ে ১৭ এপ্রিল টাঙ্গাইলের গোপালপুর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন। পুলিশের পাশাপাশি র‌্যাব-১২ মামলাটির তদন্ত শুরু করে। অবশেষে কুড়িগ্রামের রাজিবপুরের পঞ্চনগর গ্রাম অভিযান চালিয়ে আল আমিনকে গ্রেফতার করে র‌্যাব।

/জেবি/

লাইভ

টপ