মিয়ানমার থেকে আসছে ছোলা

Send
টেকানাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৯:৪০, এপ্রিল ২৫, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:৪৯, এপ্রিল ২৫, ২০১৯

টেকনাফ স্থল বন্দর

রমজান মাসকে সামনে রেখে কক্সবাজারের টেকনাফ স্থলবন্দর দিয়ে মিয়ানমার থেকে ছোলা আমদানি শুরু হয়েছে। গত দুই দিন জাহাজে করে ৭৭ দশমিক ২৫ মেট্রিক টন (প্রায় দেড় হাজার বস্তা) ছোলা টেকনাফে স্থলবন্দরে এসে পৌঁছেছে। দু-তিন দিনের মধ্যে আরও ২০০ মেট্রিক টন আসার কথা জানিয়েছেন সংশ্লিরষ্টরা। 

আমদানিকারকরা জানান, মিয়ানমার থেকে কেনা ছোলার দাম কেজি প্রতি ৬০ টাকা করে পড়েছে। ওই ছোলা টেকনাফ হাটবাজারে বিক্রি হচ্ছে ৬৬-৭০ টাকা কেজি দরে। ব্যবসায়ীরা বলছে ছোলার দাম আগের তুলনায় কম।

শুল্ক বিভাগ সূত্রে জানায়, বুধ ও মঙ্গলবার টেকনাফ স্থল বন্দরে ৭৭ দশমিক ২৫ মেট্রিক টন ছোলা আমদানি হয়েছে। এর আগে চলতি মাসেই আরও ২৯০ মেট্রিক টন ছোলা আমদানি করা হয়েছে। সব মিলিয়ে এ মাসেই ৩৬৭ দশমিক ২৫ মেট্রিক টন ছোলা আমদানি হয়েছে। এছাড়া গেল তিন মাসে মিয়ানমার থেকে ১ হাজার ৯৩৯ মেট্রিক টন (প্রায় ৪৬ হাজার বস্তা) ছোলা ক্রয় করায় হয়েছে। তবে মিয়ানমার থেকে আমদানি করা ছোলা টেকনাফ হাটবাজারে ৬৬-৭০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। রমজানকে সামনে রেখে দেশের চাহিদা মেটাতে মিয়ানমার থেকে আরও বেশি ছোলা আমদানি করতে ব্যবসায়ীদের তাগিদ দিচ্ছে কতৃপক্ষ। 

টেকনাফের খুচরা দোকানদার আবুল হোসেন বলেন, ‘ব্যবসায়ীরা মিয়ানমার থেকে আমদানি করা ছোলা সরাসরি ঢাকা ও চট্টগ্রামে বিক্রি করে দিচ্ছে। ফলে স্থানীয় বাজারে ছোলার দাম একটু বেশি।’ 

ছোলা আমদানিকারক আবুল হাসেম বলেন, ‘রমজানকে সামনে রেখে দেশে চাহিদা মেটাতে মিয়ানমার থেকে ছোলা আমদানি অব্যাহত রয়েছে। তবে মিয়ানমারের অভ্যন্তরীন সমস্যার কারণে আগের তুলনায় এখন ছোলা আমদানিতে করতে হিমশিম খেতে হচ্ছে। এরইমধ্যে বন্দরে আমার ছোলার কয়েকটি চালান এসেছে, আরও আসবে বলে তিনি জানান।’  

জানতে চাইলে টেকনাফ স্থল বন্দরের সদ্য যোগদানকারি শুল্ক কর্মকর্তা মোহাম্মদ ময়েজ উদ্দীন বলেন,‘রমজানকে ঘিরে দেশের চাহিদা মেঠাতে মিয়ানমার থেকে আরও বেশি ছোলা আমদানি করতে ব্যবসায়ীদের উৎসাহিত করা হচ্ছে।’

 

  

/জেবি/

লাইভ

টপ