‘নেতৃত্ব তৈরিতে ছাত্র সংসদ নির্বাচনের বিকল্প নেই’

Send
রাবি প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ২৩:১৪, এপ্রিল ২৫, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২৩:২৯, এপ্রিল ২৫, ২০১৯

মতবিনিময় সভা

বর্তমানে দেশে নেতৃত্ব শূণ্যতা চলছে এবং দুর্বৃত্তায়নের রাজনীতি কায়েম হয়েছে। এর পেছনের কারণ হচ্ছে যোগ্য নেতৃত্বের অভাব। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে দীর্ঘ দিন ধরে ছাত্র সংসদ নির্বাচন না হওয়ায় নেতৃত্বের এ অভাব তৈরি হয়েছে। সৎ, যোগ্য ও মেধাবী নেতৃত্ব তৈরিতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে ছাত্রসংসদ নির্বাচনের বিকল্প নেই।

বৃহস্পতিবার (২৫ এপ্রিল) বিকালে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে বিপ্লবী ছাত্রমৈত্রী আয়োজিত ‘যেমন রাকসু শিক্ষার্থীর স্বার্থে’ শীর্ষক মতবিনিময় সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন।

বক্তারা বলেন, জাতীয় নেতৃত্ব বিকাশে রাকসু নির্বাচন প্রয়োজন। প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই দেশের ক্রান্তিকালীন সময়ে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে এসেছে। বর্তমানে দেশে নেতৃত্ব শূণ্যতা চলছে এবং দুর্বৃত্তায়নের রাজনীতি কায়েমের পেছনের অন্যতম কারণ হচ্ছে ছাত্রদের রাজনৈতিক অংশগ্রহণের পরিবেশ না থাকা। তাই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সৎ, মেধাবী এবং দেশপ্রেমিক ছাত্র নেতৃত্ব তৈরির উদ্দেশ্যে শিগগিরই রাকসু নির্বাচন দেওয়া উচিত।

বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের সমালোচনা করে বক্তারা বলেন, ডাকসু নির্বাচনে পর বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন রাকসু নিয়ে সংলাপ আয়োজন করার মধ্যদিয়ে যে আশার আলো জেগেছিল তা ক্রমে মলিন হয়ে যাচ্ছে। প্রশাসন সংলাপে কালক্ষেপণ করছে। আসলে তারা ক্ষমতাকে কুক্ষিগত করে রাখতে চায়। তারা রাকসু নির্বাচন দিতে আগ্রহী নয়।

শিক্ষার্থীদের সমস্যা নিয়ে বক্তারা বলেন, হলের ডাইনিং, ক্যান্টিন, ক্যাফেটেরিয়া ও ক্যাম্পাসে ভাসমান দোকানগুলোতে স্বাস্থ্যসম্মত খাবার নেই। শিক্ষার্থীরা হলে বৈধ সিট পাচ্ছে না। সিটি চলছে বাণিজ্য। রিডিং রুম, কম্পিউটার ল্যাব, গেমস রুম, গ্রন্থাগারের অব্যবস্থাপনা রেখে শিক্ষার্থীদের অধিকার সংকুচিত করেই চলছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এসব সমস্যা সমাধানের জন্য হলেও রাকসু প্রতিনিধি প্রয়োজন।

বিপ্লবী ছাত্রমৈত্রীর সভাপতি ফিদেল মনিরের সভাপতিত্বে সভায় অংশ নেন– বাংলা বিভাগের অধ্যাপক সৌভিক রেজা, ব্যবস্থাপনা বিভাগের বিভাগের আলী রেজা অপু, রাকসু আন্দোলন মঞ্চের আহ্বায়ক আব্দুস মজিদ অন্তর, সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের রিদম শাহরীয়ারসহ অনেকে।

 

/এমএ/

লাইভ

টপ