বাণিজ্যমন্ত্রীকে নিয়ে 'অপপ্রচার', এসএ টিভির চারজনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা

Send
রংপুর প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১০:৩৬, মে ২২, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৩:০০, মে ২২, ২০১৯

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি (ছবি: ফোকাস বাংলা)বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল এসএ টিভির স্টাফ রিপোর্টার সোহেলের বিরুদ্ধে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশির বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালানোর অভিযোগ উঠেছে। জানা গেছে, রিপোর্টার সোহেল এক ব্যক্তিকে প্ররোচিত করে  একটি ভিডিও বানিয়ে সালাহউদ্দিন তালুকদার নামে এক ব্যক্তির ফেসবুক পেজে তা প্রকাশ করেন। এ ঘটনায় এসএ টিভির সিইও সালাহউদ্দিন জাকিসহ চারজনের বিরুদ্ধে মামলাও হয়েছে। ওই মামলায় গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির আদেশ দিয়েছেন আদালত। মঙ্গলবার (২১ মে) রংপুরের অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আরিফা ইয়াসমিন মুক্তা এ আদেশ দেন।

মামলার অন্য আসামিরা হলেন, এসএ টিভির চিফ রিপোর্টার বাদশা, স্টাফ রিপোর্টার সোহেল ও সালাহউদ্দিন তালুকদার নামে এক ব্যক্তি। মামলাটি করেছেন রংপুরের যুবলীগ কর্মী হাবিবুর রহমানের ছেলে হারুনুর রশীদ।

মামলার বিবরণে বলা আছে, এসএ টেলিভিশনের স্টাফ রিপোর্টার সোহেল উদ্দেশ্যমূলকভাবে এবং জহির মিয়া নামে এক ব্যক্তিকে প্ররোচিত করে একটি সাক্ষাৎকার ধারণ করেন। ঢাকা বিমানবন্দর রেলস্টেশনের কাছে সাক্ষাৎকারটি ধারণ করা হয়। ভিডিওতে তিনি বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশির নামে মিথ্যা অভিযোগ করেন, যা ছিল মানহানিকর। জহির বলেন, তার ৪০ বিঘা সম্পত্তি বাণিজ্যমন্ত্রী জবর দখল করে ভোগ করছেন। এছাড়া বাণিজ্যমন্ত্রীর নামে বেশকিছু আপত্তিকর ও মানহানিকর বক্তব্যও প্রচার করা হয়। ভিডিওটি ফেসবুকে আপলোড করার পর ৭ লাখ ৬৫ হাজার ভিউ এবং ১৭ হাজারের বেশি শেয়ার হয়েছে। এমন মিথ্যা ও মানহানিকর প্রচার চালানোয় বাণিজ্যমন্ত্রী হেয়প্রতিপন্ন হওয়াসহ তার মানহানি হয়েছে। এ ব্যাপারে এসএ টিভি কর্তৃপক্ষকে বারবার জানানোর পরও তারা কোনও ব্যবস্থা নেননি। তাই একশ’ কোটি টাকার ক্ষতিপূরণ চেয়ে মানহানির মামলা করা হয়েছে। মামলার বাদীর জবানবন্দি শেষে সোমবার বিচারক চার আসামির বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির আদেশ দিয়েছেন।

এ ব্যাপারে মামলার বাদীপক্ষের আইনজীবী ফিরোজ কবীর চৌধুরী গুঞ্জন জানান, আসামিদের নামে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির আদেশ দিয়েছেন আদালত। সেই সঙ্গে মামলার পরবর্তী শুনানির দিন আগামী ২২ জুলাই ধার্য করা হয়েছে। 

  

/জেবি/এমএমজে/

লাইভ

টপ