বগুড়ায় উপনির্বাচন: প্রচারে এগিয়ে বিএনপি, ভোট দেবে না জামায়াত!

Send
বগুড়া প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১২:০৩, জুন ১৬, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১২:১৬, জুন ১৬, ২০১৯

বগুড়া উপনির্বাচনবগুড়া-৬ (সদর) আসনের উপনির্বাচনে প্রচার জমে উঠেছে। সাত প্রার্থীর  পক্ষে তাদের নেতাকর্মীরা নির্বাচনি মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন। তবে প্রচার বেশি দেখা যাচ্ছে বিএনপি প্রার্থী ও তার সমর্থকদের। নির্বাচন নিয়ে জামায়াত সমর্থকদের আগ্রহ কম। শোনা যাচ্ছে, ২৪ জুন অনুষ্ঠেয় উপনির্বাচনে জামায়াত ভোট দেবে না এবং বিএনপির পক্ষে মাঠেও নামবে না। বিএনপি নেতাদের আশা, শিগগিরই জামায়াত তাদের পক্ষে কাজ করবে।

বগুড়া-৬ আসনে সাধারণত বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া নির্বাচন করেন। ৩০ ডিসেম্বরের জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে তার মনোনয়ন বাতিল হওয়ায় দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন এবং জয়ী হন। তবে তিনি শপথ না নেওয়ায় আসনটি শূন্য ঘোষণা করা হয়।

উপনির্বাচনে দু’জন স্বতন্ত্রসহ সাতজন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। আওয়ামী লীগের এসএমটি জামান নিকেতা, বিএনপির গোলাম মোহাম্মদ সিরাজ ও জাতীয় পার্টির নুরুল ইসলাম ওমর প্রতীক বরাদ্দের পর থেকেই প্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন।

প্রার্থীরা তৎপর হলেও ভোটারদের মাঝে তেমন আগ্রহ লক্ষ্য করা যাচ্ছে না। এছাড়া বিএনপির একটি বড় অংশ এখনও ভোট থেকে দূরে সরে রয়েছে।

বিএনপির ভোটাররা বলছেন, ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনে ভোট দিয়ে মির্জা ফখরুলকে নির্বাচিত করেছিলেন তারা। কিন্তু তিনি বিশ্বাস ভঙ্গ করে শপথ নেননি। স্থানীয় ত্যাগী নেতাদের বঞ্চিত করে এবারও বাইরের একজনকে প্রার্থী করা হয়েছে। তাই বিএনপির অনেক সমর্থক ভোট থেকে বিরত থাকবেন।

জামায়াতের একটি দায়িত্বশীল সূত্র জানিয়েছেন, কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত অনুযায়ী এ সরকারের অধীনে তারা কোনও নির্বাচনে অংশ নেবে না। এছাড়া নির্বাচনের ব্যাপারে কেন্দ্রীয় বিএনপি তাদের সঙ্গে কোনও আলোচনা করেনি। তাই তারা উপনির্বাচনে বিএনপি প্রার্থীকে সমর্থন, ভোটদান বা প্রচারে অংশ নেবেন না।

তবে সদর উপজেলা বিএনপির সভাপতি মাফতুন আহমেদ খান রুবেল জানিয়েছেন, জামায়াত তাদের সঙ্গে আছে। ২-১ দিনের মধ্যে তারা বিএনপি প্রার্থীর পক্ষে মাঠে নামবেন।

এদিকে, আওয়ামী লীগ প্রার্থীকে জয়ী করতে দল ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা কাজ করছেন।

বগুড়া জেলা সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং অফিসার মাহবুব আলম শাহ্ জানান, ২৪ জুন বগুড়া-৬ আসনে ইভিএম পদ্ধতিতে ভোটগ্রহণ করা হবে। মোট ভোটার তিন লাখ ৮৭ হাজার ৪৫৮ জন। ভোট গ্রহণের সব প্রস্তুতি গ্রহণ করা হচ্ছে।

 

/এসটি/

লাইভ

টপ