জামালপুরে সাংবাদিক পেটানোয় ছাত্রলীগ নেতা বহিষ্কার

Send
জামালপুর প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৭:৩৮, জুন ১৯, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৭:৪৭, জুন ১৯, ২০১৯

রাকিব হাসান খানএক সাংবাদিকের ওপর হামলার মাধ্যমে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে জামালপুর জেলা ছাত্রলীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক রাকিব হাসান খানকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। কেন তাকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হবে না তা জানাতে সাত দিনের সময় দেওয়া হয়েছে। রাকিব হাসান খান জামালপুরের সাংবাদিক মোস্তফা মনজুর ওপর সন্ত্রাসী হামলা মামলার পলাতক আসামি।

জামালপুর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি নিহাদুল আলম নিহাদ ও সাধারণ সম্পাদক মাকসুদ বিন জালাল প্লাবন স্বাক্ষরিক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, মঙ্গলবার (১৮ জুন) জেলা ছাত্রলীগের জরুরি সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। নিহাদুল আলম নিহাদ জানান, সাংবাদিক মোস্তফা মনজুর ওপর হামলার ঘটনায় রাকিব হাসান খানের জড়িত থাকার অভিযোগে ওঠায় তারা এই পদক্ষেপ নিয়েছেন।  

জামালপুর সদর সাব-রেজিস্ট্রার কার্যালয় প্রাঙ্গনে জাল কাগজপত্রের মাধ্যমে জমির দলিল নিবন্ধনের বিষয়ে গত ২৮ মে দুপুরে তথ্য সংগ্রহ করতে গেলে কালের কণ্ঠের সাংবাদিক মোস্তফা মনজুর ওপর সন্ত্রাসী হামলা হয়। বর্তমানে এই হামলার ঘটনায় দায়ের করা মামলার ৯ আসামির মধ্যে আটজন কারাগারে আছেন। আর পলাতক রয়েছেন রাকিব হাসান খান।

এই ৯ আসামি মামলার বাদীসহ জেলায় কর্মরত সাংবাদিকদের প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে আসছিলেন বলে অভিযোগ রয়েছে। গত ১ জুন ও ২ জুন মামলার বাদীসহ জেলায় কর্মরত ৪৮ জন সাংবাদিক জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে পৃথকভাবে জামালপুর সদর থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন। গত ৯ জুন মামলার বাদী তার আইনজীবী মো. শাসছুল হকের মাধ্যমে জামালপুর সদর আমলি আদালতে মামলার সব আসামির জামিন বাতিলের আবেদন জানান। বাদীর আবেদন মঞ্জুর করে বিচারক সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. সোলায়মান কবীর তাদের প্রত্যেকের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন। ১২ জুন মামলার পাঁচ নম্বর আসামি জেলা ছাত্রলীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক রাকিব হাসান খানছাড়া বাকি আটজন আসামি জামালপুর সদর আমলি আদালতে হাজির হয়ে আইনজীবী আমান উল্লাহ আকাশের মাধ্যমে গ্রেফতারি পরোয়ানার আদেশ বাতিল চেয়ে জামিনের আবেদন জানান। এ সময় বাদীপক্ষের আইনজীবী মো. ফজলুল হকসহ বেশ কয়েকজন আইনজীবী আসামিদের জামিনের আপত্তি জানান। পরে বিচারক আবেদন নামঞ্জুর করে আসামিদের কারাগারে পাঠান।

কারাগারে থাকা আসামিরা হলেন- পৌর কাউন্সিলর হাসানুজ্জামান খান রুনু, জামালপুর শহরের পাথালিয়া এলাকার মো. উকিল মিয়া এবং দেওয়ানপাড়া এলাকার তুহিন খান, স্বজন খান, সিদ্দিক মন্ডল, আলমগীর বাচ্চু, দলিল লেখক হাবিবুর রহমান ও তুষার খান।

/এফএস/

লাইভ

টপ