বাউফলে পুলিশের অস্ত্র ছিনতাই, পরে উদ্ধার

Send
পটুয়াখালী প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৯:০৫, জুন ২৫, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:০৬, জুন ২৫, ২০১৯

পটুয়াখালী

জমির বিরোধ নিয়ে সংঘর্ষের চলাকালীন দুই পক্ষের মধ্যে সমঝোতা চেষ্টার সময় ১০ রাউন্ড গুলিসহ পুলিশের পিস্তল ছিনিয়ে নিয়েছে দুর্বৃত্তরা। সোমবার (২৪) সকালে পটুয়াখালীর বাউফলের নাজিরপুর ইউনিয়নের বড় ডালিমা গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। তবে দুপুর ১২টার দিকে গুলিসহ অস্ত্র উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বাউফল থানার ওসি খন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান এই তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, সংঘর্ষের সংবাদ পেয়ে সেখানে যায় পুলিশ। পুলিশের চোখে মরিচের গুঁড়া ছিটিয়ে দিয়ে অস্ত্র নিয়ে যায় দৃর্বৃত্তরা। অভিযান চালিয়ে ওই অস্ত্র গুলিসহ উদ্ধার করা হয়েছে। এই ঘটনায় ৮ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

এদিকে ওই সংঘর্ষে উভয় পক্ষের ১৬ জন আহত হয়েছে। এদের মধ্যে ৪ জনকে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে এবং বাকিদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বাউফল উপজেলার নাজিরপুর ইউপির বড় ডালিমা গ্রামের হাকিম হাওলাদারের সঙ্গে কামাল হোসেন জমি নিয়ে দীর্ঘদিন পর্যন্ত বিরোধ চলে আসছিল। সোমবার সকালে ওই বিরোধপূর্ণ জমিতে কামাল হোসেন প্রায় ২৫-৩০ জন লোক নিয়ে জমি চাষ করতে গেলে হাকিম হাওলাদার বাধা দেয়অ এরপর  উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। ঘটনাস্থলে পুলিশ সেখানে গেলে কামাল হোসেনের পক্ষের লোকজন পুলিশের চোখে মরিচের গুঁড়া ছিটিয়ে দেয়। এসময় মঈনুদ্দিন নামের একজন এএসআইয়ের কোমর থেকে ১০ রাউন্ড গুলিসহ পিস্তল ছিনিয়ে নিয়ে যায় ফিরোজ হাওলাদার। এই ঘটনার পর পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে অস্ত্র উদ্ধারের অভিযান চালায়। পরে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ফিরোজের বাড়ির একটি নারিকেল গাছের নিচ থেকে গুলি ও পিস্তল উদ্ধার করা হয়।  

 

/এএইচ/

লাইভ

টপ