পাটুরিয়া-দৌলতদিয়ায় পারাপারের অপেক্ষায় ৫ শতাধিক যানবাহন

Send
মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৫:৩৯, জুন ২৭, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৬:২৪, জুন ২৭, ২০১৯

 

ডুবোচরে আটকা পড়া শাহ মখদুম ফেরি

বৈরী আবহাওয়ার কারণে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটে দুই ঘণ্টা ফেরি চলাচল বন্ধ ছিল। এছাড়া যানবাহন বোঝাই দুটি ফেরি ডুবোচরে আটকে ছিল। পরে একটি ফেরি ৩ ঘণ্টা ও আরেকটি ৫ ঘণ্টা পর উদ্ধার করা হয়। এ কারণে ঘাটের দু’প্রান্তে বিভিন্ন ধরনের ৫শ’ যান আটকে আছে। অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন করপোরেশন (বিআইডব্লিউটিসি) আরিচা অঞ্চলের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার আজমল হোসেন এ কথা জানান।

বিআইডব্লিউটিসি আরিচা ও দৌলতদিয়া কার্যালয়ে দায়িত্বরত কর্মকর্তারা জানান, বৃহস্পতিবার দুপুর পৌনে ২টা পর্যন্ত পাটুরিয়া দৌলতদিয়া নৌরুটে পারাপারের জন্য বাস, ট্রাক ও ছোট গাড়ি মিলিয়ে ৫ শতাধিক যানবাহন অপেক্ষায় আছে।

বিআইডব্লিউটিসি আরিচা কার্যালয়ের বাণিজ্য বিভাগের সহকারী মহাব্যবস্থাপক জিল্লুর রহমান জানান, বৈরী আবহাওয়ার কারণে ভোর সাড়ে ৫টা থেকে সকাল সাড়ে ৭টা পর্যন্ত ফেরি চলাচল বন্ধ ছিল। এছাড়া সকাল ৯টার দিকে অতিরিক্ত বাতাসের কারণে দুটি রো-রো ফেরি ডুবোচরে আটকা পড়ে।

জানা যায়, আটকা পড়া ফেরি আমানত শাহ যাত্রী ও যানবাহন নিয়ে পাটুরিয়ার দিকে যাচ্ছিল। আর ফেরি শাহ মখদুম দৌলতদিয়ার দিকে যাচ্ছিল। বেলা ১১টায় দিকে আমানত শাহ ফেরিটি উদ্ধার করা হয়েছে। আর দুপুর দেড়টার দিকে উদ্ধার করা হয়েছে শাহ মখদুম ফেরিটি। 

/জেবি/এমএমজে/

লাইভ

টপ