টেকনাফে অস্ত্রসহ তিন রোহিঙ্গা আটক

Send
টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ০০:৪৮, জুলাই ১২, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ০১:০২, জুলাই ১২, ২০১৯

কক্সবাজারের টেকনাফের টেকনাফের নয়াপাড়া রোহিঙ্গা শরাণার্থী শিবিরে অভিযান চালিয়ে অস্ত্রসহ তিন রোহিঙ্গা যুবককে আটক করেছে বিজিবি। আটকরা হলো- আব্দুর রহমানের ছেলে মোহাম্মদ সুলতান (১৯),মোহাম্মদ আলমের ছেলে মোহাম্মদ আয়াছ (২০) এবং মোহাম্মদ জুবাইরের ছেলে নুর কামাল (২০)।

তাদের কাছ থেকে একটি দেশীয় তৈরি অস্ত্র ও একটি খেলনার পিস্তল উদ্ধার করা হয় বলে দাবি করেছে বিজিবি।

বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) দুপুর আড়াইটার দিকে টেকনাফের ২ বিজিবি ব্যাটলিয়ান সদর দফতরের অধিনায়ক লে. কর্নেল ফয়সল হাসান খান (পিএসসি) সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এ সময় উপ-অধিনায়ক মেজর শরীফুল ইসলাম জোমাদ্দার উপস্থিত ছিলেন।

লে. কর্নেল ফয়সল হাসান খান বলেন, ‘মানবিক চিন্তায় থেকে কক্সবাজারের মানুষ লাখ লাখ রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়েছেন। কিন্তু এসব রোহিঙ্গাদের মধ্যে কেউ কেউ বিভিন্ন অপরাধে জড়িয়ে পড়ছে। এতে স্থানীয় লোকজন বিপদে রয়েছে। তবে ইতোমধ্যে আশ্রিত রোহিঙ্গা শরাণার্থী শিবিরে বিজিবি সদস্যরা তৎপর রয়েছে। তারই সূত্র ধরেই বুধবার টেকনাফের নয়াপাড়া নিবন্ধিত রোহিঙ্গা শরাণার্থী শিবিরে অভিযান চালিয়ে অস্ত্রসহ তিন রোহিঙ্গা যুবককে আটক করা হয়েছে।

এসময় মেজর শরীফুল ইসলাম জোমাদ্দার বলেন,‘সীমান্তে রোহিঙ্গাদের ব্যাপারে বিজিবি খুবই সর্তক অবস্থানে রয়েছে। বিশেষ করে রোহিঙ্গা শিবিরগুলো পাহাড়ি এলাকায় হওয়ায়, অনেক রোহিঙ্গা সংঘবদ্ধ হয়ে বিভিন্ন অপরাধে জড়াচ্ছে। ফলে বিজিবির সদস্যরা রোহিঙ্গা শিবিরে রাত-দিন টহল অব্যাহত রেখেছে এবং সেখানে আরও জনবল বাড়ানোর বিবেচনায় করা হচ্ছে। ’

 

 

/এএইচ/

লাইভ

টপ