ছেলেধরা সন্দেহে হাটহাজারীতে তিন জনকে গণপিটুনি

Send
নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম
প্রকাশিত : ২১:০৭, জুলাই ১৬, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২১:১৬, জুলাই ১৬, ২০১৯

 

 

চট্টগ্রামচট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলায় ছেলেধরা সন্দেহে তিন জনকে গণপিটুনি দিয়েছে স্থানীয় জনতা। মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) সকালে উপজেলার ছিপাতলী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

হাটহাজারী থানার ওসি বেলাল উদ্দিন মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর এ তথ্য জানিয়েছেন। এ সময় উত্তেজিত জনতা একটি প্রাইভেটকার পুড়িয়ে দেয় বলে জানান তিনি।

গণপিটুনির শিকার তিন জন হলেন- লোহাগাড়া থানাধীন আদুনগর গ্রামের আব্দুল মালেকের বাড়ির মৃত রাজা মিয়ার ছেলে আব্দুল মালেক (৬০), একই থানার পদুয়া মৌলভীপাড়ার লালুর বাপের বাড়ির মৃত মো. ইসমাইলের ছেলে চালক নুর কবির (২৮) ও আদুনগর গ্রামের সাহীপাড়ার জুনু সিকদার বাড়ির মৃত আব্দুল হাইয়ের ছেলে নুরুল ইসলাম (৬০)।

বেলাল উদ্দিন মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘গণপিটুনির শিকার তিন জন প্রতারকচক্রের সদস্য। সকালে হাটহাজারী কলেজ গেট এলাকায় তারা এক নারীকে বোকা বানিয়ে তার কাছ থেকে ছয় হাজার টাকা হাতিয়ে নেয়। এ সময় মহিলা ‘নিয়ে গেছে’ চিৎকার দিলে স্থানীয়রা ছেলেধরা সন্দেহে তাদের ধাওয়া দেয়। পরে ছিপাতলী ইউনিয়ন পরিষদের সামনে তাদের আটক করেন স্থানীয়রা। এ সময় তাদের গণপিটুনি দেওয়া হয়। পরে তাদের বহনকারী প্রাইভেটকারটি (ঢাকা মেট্রো গ- ১৩-৮৬৪০) পুড়িয়ে দেন ক্ষুব্ধ স্থানীয়রা। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়।’

তিনি আরও বলেন, মহিলাদের বোকা বানিয়ে নকল স্বর্ণের বার দেখিয়ে টাকা হাতিয়ে নিতো তারা। তিন জনকেই আশঙ্কাজনক অবস্থায় চমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। চিকিৎসা শেষে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

/টিটি/এমওএফ/

লাইভ

টপ