কেরানীগঞ্জে ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনিতে যুবক নিহত

Send
কেরানীগঞ্জ (ঢাকা) প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৮:৪২, জুলাই ২০, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:০১, জুলাই ২০, ২০১৯





গণপিটুনিঢাকার কেরানীগঞ্জে ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনিতে এক যুবক নিহত ও অপর একজন আহত হয়েছেন। আহত ব্যক্তিকে মালঞ্চ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়ছে। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক। শুক্রবার (১৯ জুলাই) রাতে হযরতপুর ইউনিয়নের রসুলপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। কেরানীগঞ্জ কলাতিয়া পুলিশ ফাঁড়ির এসআই মো. চুন্নু মিয়া এ তথ্য জানান।


হতাহতদের পরিচয় এখনও জানা যায়নি। তাদের বয়স ২৮-৩০ বছরের মধ্যে।
এসআই চুন্নু মিয়া জানান, শুক্রবার রাতে রসুলপুর গ্রামে অপরিচিত ওই দুই যুবক ঘোরাঘুরি করছিলেন। তাদের গতিবিধি স্থানীয়দের সন্দেহ হলে ছেলেধরা মনে করে পিটুনি দেন। এতে দুজনই গুরুতর আহত হন। সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে ছুটে যায়। হযরতপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. আয়নাল হোসেনের উপস্থিতে অহতাবস্থায় তাদের উদ্ধার করা হয়।
এই পুলিশ কর্মকর্তা জানান, আহতদের একজনকে চেয়ারম্যানের লোকজনের মাধ্যমে স্যার সলিমুল্লাহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল এবং অপরজনকে মালঞ্চ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার (২০ জুলাই) সকালে সলিমুল্লাহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে একজন মারা যান। আহত অপর যুবক গুরুতর অসুস্থ থাকায় কোনও কথা বলতে পারছেন না। তিনি সুস্থ হলে যুবকদের পরিচয় জানা যেতে পারে।
কেরানীগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাকের মোহাম্মাদ যোবায়ের জানান, হযরতপুরের রসুলপুর গ্রামের লোকজন ছেলেধরা বা গলাকাটা সন্দেহে দুই যুবককে গণপিটুনি দেয়। তাদের একজন মারা গেছেন। এ ব্যাপারে থানায় মামলা করা হবে। তারা আসলেই ছেলেধরা কিনা তা তদন্ত করে দেখা হবে।


আরও পড়ুন...



রাজধানীতে ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনিতে নারী নিহত

নারায়ণগঞ্জে ছেলে ধরা সন্দেহে গণপিটুনিতে যুবক নিহত

/আইএ/

লাইভ

টপ