চুয়াডাঙ্গায় ছাত্রলীগের ২ গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ২

Send
চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ২২:১৩, জুলাই ২০, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২২:৩৩, জুলাই ২০, ২০১৯

সংঘর্ষচুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার দর্শনায় ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে দুজন আহত হয়েছে। এ সময় একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে কয়েকজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিয়ে গেছে পুলিশ। শনিবার (২০ জুলাই) দুপুর দেড়টার দিকে দর্শনা পৌর শহরে এ ঘটনা ঘটে। দর্শনা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোল্লা মোহাম্মদ সেলিম বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

জানা যায়, দুপুরে দর্শনা কলেজ চত্বরে অভ্যন্তরীণ কোন্দলের জের ধরে কলেজ ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আলামিন গ্রুপের সদস্যরা ছাত্রলীগ কর্মী মামুনকে পিটিয়ে আহত করে। এরপর মামুন সমর্থিত ছাত্রলীগ কর্মীরা ক্ষিপ্ত হয়ে আলামিনকে দর্শনা বাসস্ট্যান্ড পিটিয়ে আহত করে। এরপর আলামিন গ্রুপের লোকজন দর্শনা সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি মিল্লাত হোসেনের দর্শনা রেলবাজারের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ভাঙচুর করে।

ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে ছাত্রলীগ নেতাসহ বেশ কয়েকজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিয়ে গেছে পুলিশ।

দর্শনা সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সহ- সভাপতি মিল্লাত হোসেন বলেন, ‘ঘটনার সঙ্গে আমার কোনও সম্পৃক্ততা নেই। অন্যায়ভাবে প্রভাত আলম, রায়হান, অপু, মামুন, হৃদয়সহ ১৫-২০ জন আমার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ভাঙচুর করে ব্যাপক ক্ষতি সাধন করে। এ ব্যাপারে মামলা করা হবে।

দর্শনা রেলবাজার মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক এবং সাবেক যুবলীগ নেতা সাবির হোসেন মিকা ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ভাঙচুরের ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ কর্মকর্তা মোল্লা মোহাম্মদ সেলিম বলেন, ‘অভ্যন্তরীণ কোন্দলের জের ধরে এ ঘটনা ঘটতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। আমি ডিআইজি সাহেবের ইন্সপেকশনে দামুড়হুদা থানায় ছিলাম। তবে আমি শুনেছি কয়েকজনকে আটক করে দর্শনা তদন্ত কেন্দ্রে নিয়ে এসেছে পুলিশ।  এ ব্যাপারে কেউ যদি অভিযোগ করলে অবশ্যই আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। 

/এমএএ/

লাইভ

টপ