উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় স্কুলছাত্রীকে কুপিয়ে জখম, আটক ২

Send
হবিগঞ্জ প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ০১:১৬, জুলাই ২১, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ০১:২১, জুলাই ২১, ২০১৯


হবিগঞ্জের নবীগঞ্জে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় এক স্কুলছাত্রীকে কুপিয়ে জখম করেছে দুই বখাটে। গুরুতর অবস্থায় তাকে সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে দুই যুবককে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছেন স্থানীয়রা। আটকরা হলো- জেলার নবীগঞ্জ উপজেলার নোয়াগাঁও গ্রামের আফাছ উদ্দিনের পুত্র আব্দুর রহিম (২২) ও সেকুল মিয়া (২০)।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শনিবার বিকাল ৪টার দিকে নবীগঞ্জ উপজেলার সৈয়দ আজিজ হাবিব উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণির ছাত্রী ইয়াসমিন আক্তার স্কুল শেষে বাড়িতে ফিরছিল। এ সময় দুই বখাটে যুবক তাকে উত্ত্যক্ত করে। ইয়াসমিন এর প্রতিবাদ করলে বখাটেরা দেশীয় অস্ত্র দিয়ে তাকে কুপিয়ে আহত করে। এ সময় স্কুলছাত্রীর চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করে ও ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। পাশাপাশি ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে রহিম ও সেকুল নামে দুই জনকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে স্থানীয়রা।

 উত্ত্যক্তের ঘটনায় আটক দুই যুবকসৈয়দ আজিজ হাবিব উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক আমিনুল ইসলমা স্বপন জানান, আমার স্কুলের এক ছাত্রী ছুটি শেষে বাড়িতে ফেরার পথে দুই বখাটের হালায় আহত হয়েছে। বখাটেরা তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করেছে।

স্কুল পরিচালনা কমিটির সভাপতি সৈয়দ খালেদুর রহমান বলেন, ঘটনার খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক আমি পুলিশকে অবগত করি। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে দুই জনকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

নবীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইকবাল হোসেন জানান, পারিবারিক বিরোধের জের ধরে এ ঘটনা ঘটেছে। দুই জনকে আটক করা হয়েছে। অভিযোগের প্রেক্ষিতে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

/টিটি/

লাইভ

টপ