যৌতুক না পেয়ে শ্বশুরকে গলাকেটে হত্যা, ঘাতক পলাতক

Send
বগুড়া প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ০১:২৭, জুলাই ২৩, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ০১:২৯, জুলাই ২৩, ২০১৯

হত্যা

বগুড়ার ধুনটে যৌতুক না পেয়ে এক দিনমজুরকে গলা কেটে হত্যার ঘটনায় তার জামাতা নাহিদ হাসানের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের হয়েছে। নিহতের নাম রুবেল আকন্দ (৫৫)। সোমবার (২২ জুলাই) মামলাটি দায়ের করেন নিহতের ভাই শাহ আলম।

ধুনট থানার ওসি ইসমাইল হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

নিহতের পরিবার ও স্থানীয়দের অভিযোগ, যৌতুক না দেওয়ায় রুবেল আকন্দকে গলা কেটে হত্যা করে লাশ খালে নিক্ষেপ করে তারই জামাতা নাহিদ। ঘটনার পর থেকে নাহিদ হাসান পলাতক রয়েছে।

অভিযোগে জানা গেছে, ধুনট উপজেলার নিমগাছি গ্রামের জাহেদুর রহমানের ছেলে নাহিদ হাসান প্রায় ১০ বছর আগে পার্শ্ববর্তী শিয়ালি গ্রামের দিনমজুর রুবেল আকন্দের মেয়ে রুমি আকতারকে বিয়ে করে। তাদের সংসারে এক মেয়ে সন্তানের জন্ম হয়। প্রায় দুই বছর আগে হঠাৎ রুমি আকতারের মৃত্যু হয়। দাবি করা হয়েছিল তাকে জিনে হত্যা করেছে। ওই মেয়ে সন্তানকে দেখভাল করার জন্য নাহিদ প্রায় দেড় বছর আগে রুমির ছোট বোন শ্যালিকা রুমা আকতারকে বিয়ে করে। বিয়ের সময় নাহিদ হাসান কৌশলে শ্বশুরের কাছে ৫০ হাজার টাকা যৌতুক নেয়। কিছুদিন ধরে নাহিদ শ্বশুরের কাছে আরও এক লাখ টাকা যৌতুক দাবি করে আসছিল। রুবেল আকন্দ সে টাকা দিতে না পারায় জামাইয়ের সঙ্গে সম্পর্কের অবনতি হয়। শ্বশুরকে কয়েকবার হত্যার হুমকিও দেয় সে।

জানা গেছে, গত ১৭ জুলাই বুধবার সকালের দিকে নাহিদ তার শ্বশুরের সঙ্গে অসুস্থ শাশুড়ি ফরিদা বেগমকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে ভর্তির জন্য বাড়ি থেকে বের হয়। শাশুড়িকে হাসপাতালে ভর্তির পর জামাই ও শ্বশুর ধুনটের দিকে রওনা হয়। এরপর থেকে জামাই ও শ্বশুর লাপাত্তা ছিল। ১৯ জুলাই শুক্রবার সকালের দিকে আতিকুল ইসলাম নামে এক ব্যক্তি তার ফেসবুক আইডিতে সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় খালের পানিতে এক ব্যক্তির ভাসমান লাশের ছবি পোস্ট দেন। ফেসবুকে ছবি দেখে মেয়ে রুমা আকতার লাশটি তার বাবা রুবেলের বলে শনাক্ত করেন। পরে বিষয়টি ধুনট থানায় অবহিত করা হয়।

নিহতের স্ত্রী ফরিদা বেগম অভিযোগ করেন, যৌতুক না পেয়েই জামাতা নাহিদ তার স্বামীকে হত্যা করেছে। এছাড়া তার বড় মেয়ে রুমিকেও হত্যা করেছিল।

ধুনট থানার ওসি ইসমাইল হোসেন জানান, রুবেল আকন্দের মরদেহ উল্লাপাড়া থানা এলাকায় পাওয়া যাওয়ায় সেখানে অপমৃত্যুর (ইউডি) মামলা হয়েছে। আজ সোমবার ধুনট থানায় নিহতের ভাই শাহ আলম বাদী হয়ে জামাতা নাহিদ হাসানকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। নাহিদকে ধরতে অভিযান চালাচ্ছে পুলিশ।

 

/টিএন/

লাইভ

টপ