বরিশালে কিশোর হত্যা মামলায় মা-মেয়ে কারাগারে

Send
বরিশাল প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ০০:১০, আগস্ট ১৮, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ০০:২২, আগস্ট ১৮, ২০১৯

বরিশাল

বরিশালের গৌরনদী পৌরসভার গোবর্ধন এলাকায় কিশোর আকাশ সরদার হত্যার ঘটনায় ছয়জনের নাম উল্লেখ করে মোট ১১ জনকে আসামি করে মামলা হয়েছে। শনিবার (১৭ আগস্ট) এ মামলায় গ্রেফতার হওয়া মা-মেয়েকে সিনিয়ির চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করা হলে বিচারক ইফতেখার আহমেদ তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। গৌরনদী মডেল থানার ওসি গোলাম সরোয়ার এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

ওসি গোলাম সরোয়ার জানান, শুক্রবার (১৬ আগস্ট) গভীর রাতে নিহতের বাবা উপজেলার বাঙ্গিলা গ্রামের মানিক সরদার বাদী হয়ে আকাশ সরদার হত্যার ঘটনায় মামলা দায়ের করেন।

মামলার আসামিরা হলো– তাসলিমা বেগম, তার ছোট মেয়ে সীমা আক্তার, সীমার প্রেমিক রাব্বি, ইব্রাহিম, তাসলিমার বড় জামাতা শাওন ও ইমরান। শুক্রবার রাতেই পুলিশ মামলার এজাহারভুক্ত প্রথম চার আসামিকে গ্রেফতার করে। এর মধ্যে তাসলিমা ও সীমাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এজাহারে উল্লেখ, মামলার প্রধান আসামি মালয়েশিয়া প্রবাসী আব্দুর রহিম হাওলাদারের স্ত্রী তাসলিমা বেগম তার কন্যা সীমা আক্তারকে নিয়ে গোবর্ধন গ্রামের শামছুল হকের বাড়িতে ভাড়া থাকতেন। কিছুদিন আগে ওই পরিবারের সঙ্গে বাদীর পরিবারের মতবিরোধ সৃষ্টি হয়। সম্প্রতি তাসলিমা বেগম বাসায় সীমাকে রেখে বাইরে গেলে সীমার প্রেমিক গৌরনদী উপজেলার নন্দনপট্টি গ্রামের রাব্বি ওই বাসায় ঢুকে। এ নিয়ে কথা তুললে আকাশ সরদারকে দেখে নেওয়ার হুমকি দেয় আসামিরা। এরই জেরে আকাশকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে আসামিরা।

ওসি গোলাম সরোয়ার বলেন, ‘আকাশ হত্যা মামলায় এজাহারভুক্ত চার আসামির মধ্যে তাসলিমা ও তার মেয়ে সীমাকে বৃহস্পতিবার রাতে এবং শনিবার সকালে রাব্বি ও ইব্রাহীমকে গ্রেফতার করা হয়। বাকি আসামীদেরও গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।’

গত বৃহস্পতিবার (১৫ আগস্ট) রাতে আহতবস্থায় নিজ বাড়িতে ফেরার পর আকাশকে প্রথমে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ওই রাতেই তাকে শেরে বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হলে তার অবস্থার অবনতি হয়। চিকিৎসক তাকে ঢাকায় পাঠানোর পরামর্শ দেন। অ্যাম্বুলেন্সযোগে ঢাকায় নেওয়ার পথে শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

 

/এমএ/

লাইভ

টপ