ঝালকাঠিতে মাদ্রাসার অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা

Send
ঝালকাঠি প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ০৮:৫৩, আগস্ট ১৯, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ০৮:৫৬, আগস্ট ১৯, ২০১৯

ধর্ষণ

ঝালকাঠিতে মাদ্রাসার অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে  ছাত্রীকে যৌন নির্যাতনসহ ধর্ষণের অভিযোগে মামলা হয়েছে। সদর উপজেলার তেরোআনা শাহ মাহমুদিয়া সিনিয়র মাদ্রাসার অভিযুক্ত অধ্যক্ষ এসএম কামাল হোসেন এ ঘটনার পর পলাতক রয়েছেন। একই মাদ্রাসার  অষ্টম শ্রেণির ওই ছাত্রী লেখাপড়ার পাশাপাশি অধ্যক্ষ কামাল হোসেনের বাসায় পাঁচ বছর ধরে গৃহকর্মী হিসেবে কাজ করে আসছিল।

পুলিশ ও মেয়েটির পরিবার জানায়, গত ১৫ আগস্ট দুপুরে তেরোআনা গ্রামে কামাল হোসেনের বাড়িতে ওই মেয়েটিকে সর্বশেষ ধর্ষণ করা হয়। অধ্যক্ষের স্ত্রী দেখে ফেললে বিষয়টি জানাজানি হয়। পরে অধ্যক্ষ কামাল পালিয়ে যান। এদিকে মেয়েটিকে অধ্যক্ষের ভাইয়ের বাড়িতে আটকে রাখা হয়। খবর পেয়ে পুলিশ  শনিবার রাতে সেখান থেকে তাকে উদ্ধার থানায় নিয়ে আসে।

মামলায় অভিযোগে বলা হয়েছে, দরিদ্র পরিবারের ওই মেয়েটিকে বাসায় কাজে রেখে দীর্ঘদিন থেকে অধ্যক্ষ কামাল হোসেন শারীরিক সর্ম্পক করে আসছিলেন।

ঝালকাঠি সদর থানার ওসি শোনিত কুমার গায়েন জানান,মেয়েটিকে ধর্ষণের ঘটনা জানাজানি হলে অধ্যক্ষ কামাল হোসেন পালিয়ে যান।   রবিবার (১৮ আগস্ট) দুপুরে সদর থানায় মেয়েটির বাবা বাদী হয়ে অধ্যক্ষ কামাল হোসেনের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করেছেন। অভিযুক্ত অধ্যক্ষকে গ্রেফতারে অভিযান চলছে।  নির্যাতনের শিকার ওই ছাত্রীকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

 

/এপিএইচ/

লাইভ

টপ