ডা. জাফরুল্লাহর বিরুদ্ধে লুটপাট ও ভাঙচুরের মামলা

Send
সাভার প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ০৩:২৯, আগস্ট ২৩, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ০৩:৩২, আগস্ট ২৩, ২০১৯

ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী (ছবি-সংগৃহীত)

গণ্যস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিস্ঠাতা ও ট্রাস্টি বোর্ডের সদস্য ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর বিরুদ্ধে লুটপাট, ভাঙচুর ও মারধরের মামলা দায়ের করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার  (২২ আগস্ট) সকালে সাভার উপজেলা আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক নাছির উদ্দিন বাদী হয়ে আশুলিয়া থানায় এই মামলা করেন।

মামলায় জাফরুল্লাহ চৌধুরীকে প্রধান আসামি করে গণ্যস্বাস্থ্য কেন্দ্রের নির্বাহী পরিচালক সাইফুল, প্রশাসনিক কর্মকর্তা আব্দুল সালামসহ ২০ জনের নাম উল্লেখসহ আরও ৫০ জনকে অজ্ঞাত আসামি করা হয়।

আশুলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রিজাউল হক দিপু এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, আশুলিয়ার বাঁশবাড়ি এলাকায় গণ্যস্বাস্থ্য কেন্দ্রের সঙ্গে নাছির উদ্দিন ও তার ভাইয়ের ১৬ শতাংশ জমির ওপর প্রায় ২০টি দোকান রয়েছে। গত মঙ্গলবার গভীর রাতে জাফরুল্লাহর নির্দেশে তার লোকজন এসব দোকানে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর চালায়। এসময় তারা বেশ কিছু দোকান থেকে নগদ টাকা ও মালামাল লুট করে নিয়ে যায়।

আওয়ামী লীগ নেতা নাছির উদ্দিন জানান, তিনি ওই জমিতে দোকান-পাট নির্মাণ করে ভাড়া দিয়ে আসছেন। তবে জাফরুল্লাহর লোকজন হঠাৎ করেই তাদের জমি দখলের জন্য রাতের আধারে ভাঙচুর ও লুটপাট চালিয়েছে।

এ ব্যাপারে গণ্যস্বাস্থ্য কেন্দ্রের নির্বাহী পরিচালক সাইফুল ইসলাম বলেন, ‘জমিটি গণস্বাস্থ্যের নিজস্ব সম্পত্তি। তবে নাছির উদ্দিন বেশ কিছু দিন আগে ওই জমি দখল করে দোকান-পাট নির্মাণ করে।’ তবে দোকান-পাট ভাঙচুর ও লুটপাটের অভিযোগের বিষয়টি তিনি অস্বীকার করেছেন।

আশুলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রিজাউল হক দিপু বলেন, ‘প্রাথমিকভাবে ঘটনার সত্যতা পেয়ে মামলাটি দায়ের করা হয়েছে। এ বিষয়ে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।’

 

/এএইচ/

লাইভ

টপ