বিয়ের আশ্বাস দিয়ে প্রতারণা, তাহিরপুরের ইউএনও বদলি

Send
সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১০:১৮, সেপ্টেম্বর ০৬, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১১:১৯, সেপ্টেম্বর ০৬, ২০১৯

আসিফ ইমতিয়াজপ্রতারণার অভিযোগ ওঠা সুনামগঞ্জ জেলার তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আসিফ ইমতিয়াজকে বদলি করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন এবং না জানিয়ে ওই নারীর নামে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খুলে সেখানে লাখ লাখ টাকা লেনদেনের অভিযোগের সত্যতা মিলেছে। বৃহস্পতিবার জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব মো. আবদুল লতিফ স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে তাকে বদলির বিষয়টি জানানো হয়।

আসিফ ইমতিয়াজের বিরুদ্ধে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে এক নারীর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক করার অভিযোগ ওঠে। এ বিষয়ে গঠিত তদন্ত কমিটি যার সত্যতা পায়। অভিযোগকারী নারীকে না জানিয়ে তার নামে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খুলে সেখানে লাখ লাখ টাকা লেনদেনের অভিযোগ রয়েছে। সরকারের একজন দায়িত্বশালী কর্মকর্তার এ ধরনের কর্মকাণ্ডের ফলে বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিসের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হয়েছে বলেও মতামত দেওয়া হয় তদন্ত প্রতিবেদনে। এরপর ইউএনও আসিফ ইমতিয়াজকে বদলির প্রজ্ঞাপন দেয় জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। তাকে তথ্য-প্রযুক্তি যোগাযোগ বিভাগের ইলেকট্রনিক স্বাক্ষর সার্টিফিকেট প্রদানকারী কর্তৃপক্ষের নিয়ন্ত্রক কার্যালয়ে বদলি করা হয়েছে। সেখানে সহকারী নিয়ন্ত্রক হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন আসিফ ইমতিয়াজ। তাকে রবিবার (৮ সেপ্টেম্বর) ওই পদে যোগ দিতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

তদন্ত কমিটি সূত্রে জানা যায়, ওই নারী ইউএনও আসিফ ইমতিয়াজের বিরুদ্ধে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন, হত্যার হুমকি, ব্যাংকে অবৈধ লেনদেন ও সন্তানের স্বীকৃতি দিতে অস্বীকৃতি, লোক লাগিয়ে হামলা চালিয়ে গর্ভের সন্তান নষ্ট করে দেওয়ার অভিযোগ করেন জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে। এরপর মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসন একটি তদন্ত কমিটি করে। সেখানে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মো. হারুন অর রশীদকে আহ্বায়ক করা হয়। তিনি গত ১৪ আগস্ট জেলা প্রশাসকের কাছে বিস্তারিত উল্লেখ করে একটি প্রতিবেদন জমা দেন।

এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসক মো. আব্দুল আহাদ বলেন, ‘তাহিরপুরের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আসিফ ইমতিয়াজের বিরুদ্ধে এক নারীকে বিয়ের আশ্বাস দিয়ে শারীরিক সম্পর্ক করা এবং উনাকে না জানিয়ে তার নামে অ্যাকাউন্ট করে টাকা লেনদেনের অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেছে। আমরা তদন্ত প্রতিবেদন ঢাকায় পাঠিয়ে দিয়েছি। আসিফ ইমতিয়াজকে তথ্য-প্রযুক্তি যোগাযোগ বিভাগের ইলেকট্রনিক স্বাক্ষর সার্টিফিকেট প্রদানকারী কর্তৃপক্ষের নিয়ন্ত্রক কার্যালয়ে বদলি করা হয়েছে। বৃহস্পতিবারই তিনি দায়িত্ব হস্থান্তর করেছেন।' এই ইউএনও'র বিরুদ্ধে কোনও বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে কিনা সেটা বলতে পারছেন না বলে জানান ডিসি। 

আসিফ ইমতিয়াজের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করলে ভারপ্রাপ্ত ইউএনও'র দায়িত্বে থাকা এসি ল্যান্ড মুনতাসির হাসান জানান, দায়িত্ব হস্তান্তরের সময় আসিফ তার সরকারি ফোন রেখে গেছেন। ব্যক্তিগত নম্বরে যোগাযোগ করা সম্ভব নয়। 

 

/এফএস/

লাইভ

টপ