শিক্ষার্থীদের দিয়ে টয়লেট পরিষ্কার করানোর অভিযোগ প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে

Send
পিরোজপুর প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ০৯:১১, সেপ্টেম্বর ০৯, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ০৯:৩৬, সেপ্টেম্বর ০৯, ২০১৯

প্রধান শিক্ষক নার্গিস খানমপিরোজপুর সদর উপজেলার ৭৪ নং মধ্য নামাজপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নার্গিস খানমের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ করেছেন অভিভাবকরা। তিনি শিক্ষার্থীদের দিয়ে টয়লেট ও পানির ট্যাংক পরিষ্কার করান বলে দাবি করেছেন তারা। তবে প্রধান শিক্ষক এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও এলাকাবাসী রবিবার (৮ সেপ্টেম্বর) প্রধান শিক্ষকের অপসারণ দাবিতে মানববন্ধন করেছেন। মানববন্ধনে বক্তারা অভিযোগ করেন, নামাজপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিশু থেকে পঞ্চম শ্রেণিতে বর্তমানে ১০১ জন শিক্ষার্থী রয়েছে। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নার্গিস খানম বিদ্যালয়টি নিজের ইচ্ছেমতো পরিচালনা করে লেখাপড়ার মান খারাপ করছেন। তিনি নিজে নিয়মিত স্কুলে উপস্থিত থাকেন না এবং তেমন কোনও ক্লাসও নেন না। এসব বিষয়ে অভিভাবকরা জানতে চাইলে শিক্ষার্থীদের সামনেই অভিভাবকদের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করে। এছাড়া প্রধান শিক্ষক প্রায়ই শিক্ষার্থীদের মারধর ও অকথ্য ভাষায় কথা বলেন। এ কারণেই তারা সন্তানদের স্কুলে পাঠানো বন্ধ করে দিয়েছেন। প্রধান শিক্ষকের অপসারণ দাবি করেন তারা।

প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে মানববন্ধন তারা আরও জানান, প্রধান শিক্ষক শিক্ষার্থীদের দিয়ে জোর করে স্কুলের টয়লেট ও পানির ট্যাংক পরিষ্কার করান।

প্রধান শিক্ষক নার্গিস খানম জানান, তার বিরুদ্ধে যেসব অভিযোগ করা হয়েছে তা সবই মিথ্যা। স্থানীয় কয়েকজন ব্যক্তি ব্যক্তিগত শত্রুতার কারণেই শিক্ষার্থীদের দিয়ে এ কাজ করিয়েছে। 

/এসটি/এমএমজে/

লাইভ

টপ