বেতের আঘাতে শিক্ষার্থীর চোখ নষ্টের ঘটনায় শিক্ষকের বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা

Send
হবিগঞ্জ প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৮:৪১, সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:৫০, সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৯

হাবিবা আক্তারহবিগঞ্জে শিক্ষকের ছোড়া বেতের আঘাতে হাবিবা আক্তার (৮) নামে এক শিক্ষার্থীর চোখ নষ্ট হওয়ার ঘটনায়  অভিযুক্ত শিক্ষক নিরঞ্জন দাসের বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা দায়ের করা হয়েছে। বুধবার (১১ সেপ্টেম্বর) জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আব্দুর রেজ্জাক বিভাগীয় মামলা রুজু করে প্রতিবেদন প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের ডিজির কাছে পাঠান। পাশাপাশি নিরঞ্জন দাসকে সাময়িক বরখাস্তের চিঠি পাঠানো হয়েছে।

বুধার সন্ধ্যায় জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আব্দুর রেজ্জাক বিভাগীয় মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, আজ থেকেই অভিযুক্ত শিক্ষকের পাঠদান কার্যক্রম বন্ধ থাকবে। শিগগিরই তাকে স্থায়ী বরখাস্তের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, গত রবিবার (৮ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ক্লাস চলাকালে সহকারী শিক্ষক নিরঞ্জন দাশ তার হাতের একটি বেত ছুড়ে মারলে তা সরাসরি হাবিবার চোখে লাগে। এতে তার চোখ থেকে রক্তক্ষরণ শুরু হয়। পরে শিক্ষার্থীদের মধ্যে চিৎকার শুরু হলে স্থানীয় লোকজন হাবিবাকে উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে নিয়ে যান। সদর হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য দ্রুত তাকে ঢাকা চক্ষু বিজ্ঞান ইনস্টিটিউটে পাঠানো হয়। সোমবার অপারেশনের পর চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, হাবিবার চোখ নষ্ট হয়ে গেছে।

হাবিবা যাদবপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী এবং একই এলাকার প্রবাসী শাহিন মিয়ার মেয়ে।

আরও পড়ুন- 

মায়ের আর্তি, ‘একটা চোখ যদি কেউ দিতো মাইয়াটারে’

বেতের আঘাতে শিক্ষার্থীর চোখ নষ্টের ঘটনায় শিক্ষক বরখাস্ত

শিক্ষকের বেতের আঘাতে শিক্ষার্থীর চোখ নষ্ট

/এফএস/

লাইভ

টপ