বরিশালে ডেঙ্গু আক্রান্ত কিশোরীর মৃত্যু

Send
বরিশাল প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৫:০৯, সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৫:২২, সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৯

শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ডেঙ্গু ওয়ার্ডবরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরও এক ডেঙ্গু রোগীর মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১২ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ৭টার দিকে মারা যায় সুরাইয়া আক্তার (১৪)। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত শেবাচিম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আটে জনের মৃত্যু হলো।

সুরাইয়া আক্তার বরগুনার পাথরঘাটা উপজেলার পদ্মা গ্রামের বাদল মুন্সির মেয়ে এবং স্থানীয় পশ্চিম হারিটানা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী।

শেবাচিম হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, গত ৬ সেপ্টেম্বর জ্বরে আক্রান্ত হয় সুরাইয়া। পরে তাকে পাথরঘাটা উপজেলা সদরে প্রাইভেট ডাক্তার দেখানো হয়। সেখানে পরীক্ষা নিরীক্ষায় তার শরীরে ডেঙ্গু ধরা পড়ে। ১০ সেপ্টেম্বর রাত ৮টা ৪০ মিনিটে তাকে শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করেন স্বজনরা।

উপপরিচালক আরও বলেন, ‘সুরাইয়ার শরীরের হিমোগ্লোবিন আশঙ্কাজনকভাবে কমে গিয়েছিলো। এ কারণে তার শরীরে দুই ব্যাগ রক্তও দেওয়া হয়। কিন্তু চিকিৎসকদের সব চেষ্টা ব্যর্থ করে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে মেয়েটি।’

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে শের-ই-বাংলা মেডিকেলে ভর্তি হয়েছে ১৯ জন রোগী। এর মধ্যে পাঁচ জন পুরুষ, আট জন নারী এবং ছয়টি শিশু রয়েছে। একই সময়ে চিকিৎসায় সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়ে গেছেন ৩১ জন।

বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত মেডিক্যালে চিকিৎসাধীন ছিলেন ৯৯জন ডেঙ্গু রোগী। এর মধ্যে পুরুষ ৩৯জন, নারী ৩৪জন এবং শিশু ২৬জন।

গত ১৬ জুলাই থেকে বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে ভর্তি হয় ২ হাজার ১৭০জন রোগী। একই সময়ে চিকিৎসায় সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন দুইহাজার ৬৩জন। এই সময়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আট ডেঙ্গু রোগীর মৃত্যু হয়। এছাড়া গৌরনদীতে আরও দুই জন ডেঙ্গুতে মারা গেছেন।

 

/এফএস/

লাইভ

টপ