সুদীপ্ত হত্যা মামলায় গ্রেফতার দিদারুল আলম মাসুম জামিনে মুক্ত

Send
নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম
প্রকাশিত : ০৬:০০, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ০৬:১৪, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৯

আওয়ামী লীগ নেতা দিদারুল আলম মাসুম

ছাত্রলীগ নেতা সুদীপ্ত হত্যা মামলায় গ্রেফতার হয়ে ৪২ দিন কারাগারে থাকার পর জামিনে মুক্ত পেয়েছেন চট্টগ্রাম নগরীর লালখান বাজার আওয়ামী লীগ নেতা দিদারুল আলম মাসুম। রবিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) দুপুর আড়াইটার দিকে তিনি চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে ছাড়া পান।

চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার মো. কামাল উদ্দিন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। বাংলা ট্রিবিউনকে তিনি বলেন, ‘হাইকোর্টের জামিন আদেশ চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ আদালত হয়ে আজ (রবিবার) সকালে কারাগারে আসে। যাচাই-বাছাই শেষে আর কোনও মামলা না থাকায় দুপুরে দিদারুল আলম মাসুমকে মুক্তি দেওয়া হয়।’

দিদারুল আলম মাসুম নগরীর লালখান বাজার ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক। প্রয়াত আওয়ামী লীগ নেতা মহিউদ্দিন চৌধুরী হাত ধরে রাজনীতিতে আসা দিদারুল আলম মাসুম বর্তমানে নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীনের অনুসারী হিসেবে পরিচিত।

এর আগে গত ৪ আগস্ট রাত সাড়ে ১০টার দিকে ঢাকার বনানীর কামাল আতার্তুক এভিনিউয়ের ব্লু ওশান টাওয়ারের সামনে থেকে দিদারুল আলম মাসুমকে গ্রেফতার করে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। পরদিন ৫ আগস্ট মাসুমকে চট্টগ্রামে আদালতে হাজির করে সুদীপ্ত হত্যা মামলায় ১০ দিনের রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পিবিআই পরিদর্শক সন্তোষ কুমার চাকমা। আদালত দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালের ৬ অক্টোবর সকালে চট্টগ্রাম নগরীর সদরঘাট থানাধীন দক্ষিণ নালাপাড়া এলাকায় বাসার সামনে সুদীপ্ত বিশ্বাস খুন হন। নগর ছাত্রলীগের সভাপতি ইমরান আহমেদ ইমুর অনুসারী হিসেবে পরিচিত সুদীপ্ত চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর রাজনীতি করতেন। এ ঘটনায় আটজনকে অজ্ঞাত আসামি করে তার বাবা বাবুল বিশ্বাস সদরঘাট থানায় মামলা দায়ের করেন। এ মামলায় মিজানুর রহমান নামে এক আসামি চলতি বছরের ১২ জুলাই আদালতে জবানবন্দি দেন। জবানবন্দিতে মিজানুর রহমান জানান, সুদীপ্ত খুনের মূল পরিকল্পনাকারী ও নির্দেশদাতা ‘বড় ভাই’ দিদারুল আলম মাসুম। এরপরই পুলিশ সুদীপ্ত হত্যা মামলায় আসামির তালিকায় মাসুমের নাম অন্তর্ভুক্ত করে।

/এমএ/

লাইভ

টপ