মোটরসাইকেল আটক করায় ট্রাফিক ইন্সপেক্টরের ওপর হামলা, আটক ১

Send
নড়াইল প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ০৯:৫০, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১১:১৯, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৯

আহত ট্রাফিক ইন্সপেক্টর

নড়াইলে কাগজপত্রবিহীন মোটরসাইকেল আটক করায় ট্রাফিক পুলিশের ইন্সপেক্টর মনিরুজ্জামানকে রবিবার সন্ধ্যায় পিটিয়ে আহত করেছে সন্ত্রাসীরা। এ সময় ট্রাফিক সার্জেন্ট শাহ জালাল, এটিএসআই সরোয়ার আলম ও বাসিউরসহ এক কনস্টেবলের ওপর হামলা করা হয়েছে বলে পুলিশের অভিযোগ। ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ রবিবার রাতে নড়াইল সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান তোফায়েল মাহমুদ তুফানকে আটক করেছে।

নড়াইলের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন এ কথা জানান।

আটক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান

আহত পুলিশ কর্মকর্তা মনিরুজ্জামান জানান, পুলিশ সুপারের নির্দেশে রবিবার সন্ধ্যার দিকে শহরের পুরনো বাস টার্মিনাল এলাকায় মোটরসাইকেলসহ অন্যান্য যানবাহনের বৈধ কাগজপত্র পরীক্ষা করার সময় কাগজপত্রবিহীন একটি মোটরসাইকেলসহ এক যুবককে আটক করে পুলিশ। ওই যুবক বিষয়টি মোবাইল ফোনে সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ও ছাত্রলীগ নেতা তোফায়েল মাহমুদ তুফানকে জানায়। এর কিছুক্ষণ পর তুফানসহ তার লোকজন ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পুলিশের সঙ্গে খারাপ আচরণ করে। এক পর্যায়ে তোফায়েল মাহমুদ তুফানসহ তার লোকজন কাঠ দিয়ে ট্রাফিক পুলিশের ইন্সপেক্টর মনিরুজ্জামানকে বেধড়ক মারধর করে। এ সময় ট্রাফিক সার্জেন্ট শাহ জালাল, এটিএসআই সরোয়ার আলম, বাসিউরসহ এক কনস্টেবল এগিয়ে গেলে সন্ত্রাসীরা তাদেরও মারধর করে। সন্ত্রাসীদের হামলায় পুলিশ কর্মকর্তা মনিরুজ্জামানের মাথা ফেটে গেছে ও তার দুই হাত গুরুতর জখম হয়েছে। গুরুতর আহত পুলিশ কর্মকর্তা মনিরুজ্জামানকে নড়াইল সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অন্যদেরও প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

এ ব্যাপারে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন বলেন,‘এ ঘটনায় সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান তোফায়েল মাহমুদ তুফানকে আটক করা হয়েছে। আটক তোফায়েল মাহমুদ তোফানসহ হামলাকারীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।’

 

/জেবি/

লাইভ

টপ