সাত বছরের শিশুকে হত্যার অভিযোগে সৎমা গ্রেফতার

Send
বাগেরহাট প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৫:১৯, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:৪৩, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১৯

শিশু সিয়ামকে হত্যার অভিযোগে গ্রেফতার সৎ মাবাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে নিখোঁজের ২ দিন পর সিয়াম নামে সাত বছরের এক শিশুর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার সকালে অর্ধগলিত লাশটি উদ্ধার করে মোরেলগঞ্জ থানা পুলিশ। গত রবিবার দুপুর থেকে সে নিখোঁজ ছিল। সিয়ামকে হত্যার অভিযোগে তার সৎমা ফেরদৌসী বেগমকে (২২) আটক করা হয়েছে। মোরেলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কে এম আজিজুল ইসলাম এ কথা জানান।

নিহত সিয়াম মোরেলগঞ্জ উপজেলার হোগলাবুনিয়া ইউনিয়নের বদনিভাঙা গ্রামের মিরাজ মোল্লার ছেলে। সে স্থানীয় বিএস রহমাতিয়া দাখিল মাদ্রাসার শিশুশ্রণির ছাত্র ছিল। সিয়ামের তিন বছর বয়সে তার মায়ের সঙ্গে মিরাজ মোল্লার বিচ্ছেদ হয়ে যায়। মিরাজ এরপর ফেরদৌসী বেগমকে বিয়ে করেন। সিয়ামও সৎমায়ের কাছেই বড় হচ্ছিল।

মোরেলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কে এম আজিজুল ইসলাম জানান, গত রবিবার সিয়াম নিখোঁজ হয়। পরে স্বজনরা তাকে খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে পুলিশকে জানায়। একপর্যায়ে পুলিশের সন্দেহ হলে সিয়ামের সৎমা ফেরদৌসী বেগমকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে সে সিয়ামকে হত্যার কথা স্বীকার করে। সিয়ামকে হত্যার পর বাথরুমের পাশে লাশ পুঁতে রেখেছে বলে জানায়। তার দেওয়া তথ্য অনুযায়ী সিয়ামের লাশ উদ্ধার করা হয়। ফেরদৌসী বেগমকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাকে আদালতে পাঠানো হবে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য বাগেরহাট সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

/জেবি/এমওএফ/

লাইভ

টপ