বাবাকে হাতুড়িপেটায় হত্যা: ছেলের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি

Send
কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ২২:০০, সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২২:০৫, সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৯

নুরু মিয়া (ফাইল ছবি)

কুড়িগ্রামের রৌমারী উপজেলায় হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে প্রবাসী নুরু মিয়াকে হত্যার ঘটনায় তার বড় ছেলে রাশেদুল ইসলাম আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। শুক্রবার (২০ সেপ্টেম্বর) বিকালে চিফ জুডিশিয়াল মেজিস্ট্রেট পবন কুমার বর্মনের আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন রাশেদ। রৌমারী থানার ওসি আবু মো. দিলওয়ার হাসান ইনাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ ও আদালত সূত্র জানায়, প্রবাসী নুরু মিয়াকে হত্যার ঘটনায় তার বড় বোন ফাতেমা বেগম বাদী হয়ে নুরুর স্ত্রী রাবেয়া খাতুন (৪৮), ছেলে রাশেদুল ইসলাম (৩০), আব্দুল্লাহ (২২) ও আতিকুর রহমানকে (১৮) আসামি করে রৌমারী থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। পুলিশ নুরুর স্ত্রী ও তিন ছেলেকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠায়। নুরুর বড় ছেলে রাশেদুল ইসলাম হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) রৌমারী উপজেলার বন্দবেড় ইউনিয়নের বন্দবেড় গ্রামে আর্থিক ও জমিজমা সংক্রান্ত দ্বন্দ্বে নিজ বাড়িতে স্ত্রী ও তিন ছেলের হাতুড়িপেটায় প্রাণ হারান নুরু মিয়া (৫৩)। এ ঘটনায় নুরুর স্ত্রী ও তিন ছেলেকে আটক করে পুলিশ।

 

/এমএ/

লাইভ

টপ