খাবারে বড়শি, রাবির আবাসিক হলের ডাইনিংয়ে ভাঙচুর

Send
রাবি প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ০০:৪২, সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ০০:৪৪, সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৯

single pic template-1রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) নবাব আবদুল লতিফ হলের ডাইনিংয়ের খাবারে মাছধরার বড়শি ও কেঁচো পাওয়ার অভিযোগে ভাঙচুর করেছে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা। শুক্রবার (২০ সেপ্টেম্বর) দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনা তদন্তে হলের আবাসিক শিক্ষক সাইফুর রহমানকে আহ্বায়ক করে তিন সদস্যের কমিটি করা হয়েছে।

হল সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার দুপুর একটার দিকে হলের আবাসিক ছাত্র ও বাংলা বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ইমরান হোসেন ডাইনিংয়ে খাওয়ার সময় মাছভর্তার মধ্যে বড়শি ও কেঁচো পান। তিনি বিষয়টি হলের অন্য শিক্ষার্থীদের জানালে তারা ক্ষুব্ধ হয়ে ডাইনিংয়ে ভাঙচুর করে। পরে তারা খাবারের মান বৃদ্ধি, রাত সাড়ে ১০টার পর্যন্ত ডাইনিং খোলা রাখা, রিডিং রুমের ব্যবস্থা, দ্রুতগতির ওয়াইফাই সংযোগ স্থাপনসহ কয়েক দফা দাবিতে হলগেট বন্ধ করে আন্দোলন শুরু করে।

বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে সরেজমিন দেখা যায়, শিক্ষার্থীরা হলগেট বন্ধ করে সংস্কারসহ কয়েক দফা দাবিতে আন্দোলন করছে। এ সময় তারা ‘খাবারে বড়শি কেনো’, ‘অজুখানা নেই কেনো’, ‘রিডিং রুম নেই কেনো?’, ‘ক্যান্টিন নেই কেনো?’ প্রশাসন জবাব চাই বলে  স্লোগান দিতে থাকেন।

আন্দোলনে অংশ নেওয়া ওই হলের আবাসিক শিক্ষার্থী মেহেদী হাসান বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘এ হলের ডাইনিংয়ে খাবারের মান খুবই নিম্ন। এখানে খাবারের মধ্যে প্রায়ই পোকামাকড় ও পাথর পাওয়া যায়। বিষয়টি বিভিন্ন সময়ে হল প্রশাসনকে অবহিত করলেও দৃশ্যত কোনও উন্নতি হয়নি।’

বিকাল ৪টার দিকে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে প্রক্টর অধ্যাপক লুৎফর রহমান ডাইনিং পরিদর্শন করেন। পরে প্রাধ্যক্ষের কক্ষে গিয়ে হলের প্রাধ্যক্ষ ও আবাসিক শিক্ষকদের সঙ্গে বৈঠক করেন। শিক্ষার্থীরা হল সংস্কারের দাবিতে বেশ কয়েকটি দাবি জানান। প্রাধ্যক্ষ শিক্ষার্থীদের দাবি মেনে নেওয়ার আশ্বাস দিলে তারা আন্দোলন স্থগিত করে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে হল প্রাধ্যক্ষ ইকরাম হোসেন বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের দাবির অধিকাংশই বাস্তবায়নের কাজ চলছে। বাকিগুলোও পর্যায়ক্রমে বাস্তবায়ন করা হবে। এছাড়া খাবারে বড়শি পাওয়ার ঘটনা তদন্তে তিন সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে। আগামী ১০ কার্যদিবসের মধ্যে কমিটি তাদের প্রতিবেদন জমা দেবে।’

জানতে চাইলে প্রক্টর অধ্যাপক ড. লুৎফর রহমান বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের অভিযোগ আমলে নিয়ে তদন্ত কমিটি করা হয়েছে। শিক্ষার্থীদের দাবি পূরণে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে হল প্রশাসনকে বলেছি।’

 

/এমএএ/

লাইভ

টপ