রাজশাহীতে এবার ৪৪৯টি মণ্ডপে হবে দুর্গা পূজা

Send
রাজশাহী প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ০৩:৪১, সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ০৩:৪১, সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৯

আসন্ন শারদীয় দুর্গোৎসবকে সামনে রেখে ব্যস্ত সময় পার করছেন রাজশাহীর প্রতিমাশিল্পীরা। ইতোমধ্যেই অধিকাংশ মণ্ডপে শেষ হয়েছে দেবী দুর্গার প্রতিমা তৈরি। এখন তড়িঘড়ি করে এগিয়ে চলছে রঙ তুলি দিয়ে দেবীকে সাজানোর কাজ। এবার রাজশাহীতে ৪৪৯টি মণ্ডপে দুর্গোৎসবের প্রস্তুতি চলছে। শান্তিপূর্ণ পরিবেশে পূজা উদযাপন করার জন্য ইতোমধ্যেই আইনশৃঙ্খলা বাহিনী পর্যাপ্ত নিরাপত্তার জন্য মতবিনিময় করেছে।

পুলিশের তথ্যমতে, এবার রাজশাহী নগরীতে ৯৯টি ও জেলার আট উপজেলায় ৩৫০টি মণ্ডপে দুর্গা পূজা উদযাপিত হবে।

রাজশাহী নগরীর আলপুট্টি এলাকায় বৈশাখ মাস থেকে ২৭টি প্রতিমা তৈরি কাজ শুরু করেছেন কার্তিক চন্দ্র পাল। শুক্রবার (২০ সেপ্টেম্বর) বিকালে গিয়ে দেখা গেছে, প্রতিমার অবকাঠামো তৈরি হয়ে গেছে। প্রতিমাতে সাদা রঙের তুলির আঁচড় দেওয়া হচ্ছে। কাজের ফাঁকে শিল্পী কার্তিক চন্দ্র পাল বলেন, আগামী ২ সেপ্টেম্বর এগুলো সরবরাহ করা হবে। নগরী ও জেলার বিভিন্ন উপজেলা থেকে এবার প্রতিমা তৈরির জন্য বলা হয়েছে। আকার ভেদে ৩০ থেকে ৫০ হাজার টাকা খরচ হচ্ছে একটা প্রতিমা তৈরি করতে। আমার সঙ্গে ছয় জন কারিগর রয়েছেন। তারা রাতদিন সমান করে কাজ করছেন।

এদিকে আসন্ন শারদীয় দুর্গা পূজা উদযাপন উপলক্ষে মঙ্গলবার (১৭ সেপ্টেম্বর) রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশ সদর দফতরের কনফারেন্স রুমে আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে সভাপতিত্ব করেন, আরএমপি’র পুলিশ কমিশনার হুমায়ুন কবির।

মতবিনিময় সভায় আসন্ন দুর্গা পূজায় নগরীর আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি যেন স্বাভাবিক থাকে ও প্রতিমা প্রস্তুতকরণ, প্রতিমা প্রস্তুতকালীন এবং পূজা চলাকালীন নিরাপত্তার বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়। সভায় উপস্থিত হিন্দু সম্প্রদায়ের নেতাদের আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয়ে পরামর্শ দেওয়া হয়।

অপরদিকে গত বুধবার (১৮ সেপ্টেম্বর) রাজশাহী জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ের আসন্ন শারদীয় দুর্গা পূজা উপলক্ষে নিরাপত্তা বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন, রাজশাহী জেলার পুলিশ সুপার মো. শহিদুল্লাহ, বিপিএম, পিপিএম। এসময় জেলা পুলিশের অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা । এছাড়াও আটটি উপজেলার পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক এবং হিন্দু সম্প্রদায়ের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। শারদীয় দুর্গা পূজা যাতে শান্তিপূর্ণভাবে উদযাপিত হয়। এছাড়া কোনও ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে সে বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়।

রাজশাহী জেলা পুলিশের মুখপাত্র ও সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার ইফতেখায়ের আলম বলেন, ‘অন্য বছরের মতো এবারও শান্তিপূর্ণভাবে পূজা উদযাপনের ক্ষেত্রে জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা থাকবে। প্রতিমা তৈরি থেকে শুরু করে বিসর্জন পর্যন্ত নিরাপত্তা দেওয়া হবে। ইতোমধ্যে গোয়েন্দা তৎপরতা বাড়ানো হয়েছে। পোশাকি পুলিশের পাশাপাশি সাদা পোশাকের পুলিশ নিয়োজিত থাকবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘থানার অফিসার ইনচার্জরা পূজা কমিটির সঙ্গে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখার নির্দেশনাসহ ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা জোরদারের জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।’ কোনও ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়া যাতে শারদীয় দুর্গা পূজা উদযাপিত হয় সেই সঙ্গে কোনো ধরনের গুজবে কান না দেওয়ার জন্য সবার প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

/এআর/

লাইভ

টপ